Dreamy Media BD

জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে আবেদন করার নিয়ম 

জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে আবেদন

জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে আবেদন করার নিয়ম 

জন্ম নিবন্ধন করতে কি কি লাগে

জন্ম নিবন্ধন করতে যেসব জিনিসের প্রয়োজন হয়ঃ  

  • শিশুর জন্মের প্রমাণপত্র (যেমন, হাসপাতালের জন্ম নিবন্ধন, ডাক্তারের জন্ম নিবন্ধন বা গর্ভবতী মায়ের স্বাস্থ্যবিধি কার্ড)
  • শিশুর অভিভাবকের পরিচয়পত্র (যেমন, জাতীয় পরিচয়পত্র, পাসপোর্ট বা জন্ম নিবন্ধন নম্বর)
  • আবেদনকারীর পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি

বয়স অনুসারে প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের তালিকা

  • বাচ্চার বয়স ০ থেকে ৪৫ দিন হলে 
    • ইপিআই (টিকা) কার্ড বা হাসপাতালের ছাড়পত্র
    • বাড়ির হোল্ডিং নম্বর এবং হোল্ডিং ট্যাক্সের রশিদ
    • আবেদনকারী পিতা-মাতার মোবাইল নম্বর
    • পিতা ও মাতার অনলাইন জন্ম নিবন্ধন সনদের কপি (যদি থাকে)
    • পিতা ও মাতার ভোটার আইডি কার্ডের কপি (যদি থাকে)
  • বাচ্চার বয়স ৪৬ দিন থেকে ৫ বছর হলে 
    • ইপিআই (টিকা) কার্ড / স্বাক্ষর ও সীলসহ স্বাস্থ্য কর্মীর প্রত্যয়নপত্র
    • পিতা ও মাতার ভোটার আইডি কার্ডের কপি (যদি থাকে)
    • পিতা ও মাতার অনলাইন জন্ম নিবন্ধন সনদের কপি (যদি থাকে)
    • স্বাক্ষর ও সীলসহ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের প্রত্যয়নপত্র (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)
    • আবেদনকারী পিতা-মাতার মোবাইল নম্বর
    • বাড়ার হোল্ডিং নম্বর এবং হোল্ডিং ট্যাক্সের রশিদ
  • ৫ বছরের বেশি বয়স হলে 
    • সরকার কর্তৃক পরিচালিত প্রথমিক শিক্ষা সমাপনী, জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট অথবা শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক পরিচালিত মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট
    • বয়স প্রমাণের জন্য চিকিৎসক কর্তৃক প্রত্যয়ন পত্র (এমবিবিএস বা তদূর্ধ্ব ডিগ্রিধারী চিকিৎসক)
    • পিতা ও মাতার অনলাইন জন্ম নিবন্ধন সনদের কপি (যদি থাকে)
    • পিতা ও মাতার ভোটার আইডি কার্ডের কপি (যদি থাকে)
    • জন্মস্থান বা স্থায়ী ঠিকানা প্রমাণের জন্য পিতা / মাতা/ পিতামহ / পিতামহীর দ্বারা স্বনামে স্থায়ী ঠিকানা হিসেবে ঘোষিত আবাস স্থলের বিপরীতে হালনাগাদ কর পরিশোধের রশিদ

Also Read : জন্ম নিবন্ধন সংশোধন

  জন্ম নিবন্ধন অনলাইন যাচাই

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন আবেদন | birth registration bd Online

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন আবেদন (jonmo nibondhon online) খুব সহজে করা যায়।  পাঠকের সুবিধার্থে পুরো প্রক্রিয়াটি ধাপে ধাপে সচিত্র বর্ণনা করা হলো: 

প্রথম ধাপ: জন্ম নিবন্ধনের জন্য আবেদন

জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে আবেদন

বাংলাদেশ সরকারের জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধনের জন্য একটি অভিন্ন ওয়েবসাইট আছে। জন্ম নিবন্ধনের জন্য প্রথমে https://bdris.gov.bd/br/application  এই লিংকে প্রবেশ করুন।  এখানে উপরের চিত্রের মত একটি পেজ দেখতে পারবেন।  এখানে , শিশুর যে ঠিকানায় জন্মনিবন্ধন করবেন সেটা বাছাই করুন।  যদি বিদেশ থেকে করেন তাহলে “আপনি নিম্নলিখিত কোন ঠিকানায় জন্ম নিবন্ধনের আবেদন করতে চান? ” এই বক্সে টিক দিবেন।  তারপর ‘পরবর্তী’ বাটনে ক্লিক করুন।  

দ্বিতীয় ধাপ: নিবন্ধনাধীন ব্যক্তির পরিচিতি প্রদান 

জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে আবেদন
জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে আবেদন

এই ধাপে যে নবাগত শিশুর জন্মনিবন্ধন আবেদন করা হচ্ছে তার বিষয়ে কিছু তথ্য দিতে হবে।  প্রথমে নামের প্রথম ও দ্বিতীয় অংশ বাংলায় ও ইংরিজিতে দিতে হবে।  তারপর শিশুর জন্মতারিখ ফর্মে দেওয়া ডিজিটাল ক্যালেন্ডার থেকে নির্বাচন করতে হবে।  

নবাগত শিশুর ‘পিতা ও মাতার কততম সন্তান’ ও লিঙ্গ নির্বাচন করুন।  

সর্বশেষ, শিশুর জন্মস্থানের ঠিকানা নির্বাচন করতে হবে এবং পরবর্তী বাটনে ক্লিক করতে হবে।  

তৃতীয় ধাপ: শিশুর পিতা-মাতার তথ্য প্রদান 

জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে আবেদন
জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে আবেদন

এই ধাপে শিশুর পিতা মাতার তথ্য দেবার জন্য একটি ফর্ম পাওয়া যাবে।  যেখানে, পিতা মাতার জন্মনিবন্ধন নম্বর, নাম (বাংলা ও ইংরেজিতে), জাতীয় পরিচয় পত্র নম্বর ও জাতীয়তা নির্বাচন করতে হবে।  

তারপর,’পরবর্তী’ বাটনে ক্লিক করতে হবে।   

চতুর্থ ধাপ: শিশুর বর্তমান ও স্থায়ী ঠিকানার তথ্য প্রদান

এই ধাপটি অনেকের কাছেই গোলমেলে লাগে কিন্তু একটু বুঝে করলে ব্যাপারটি সহজ হয়ে যাবে।  

জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে আবেদন
জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে আবেদন

এখানে কোনোটিই নয় বাটনে ক্লিক করুন।  তাহলে ঠিকানা দেবার জন্য নিচের মতো ফর্ম পাবেন। 

জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে আবেদন
জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে আবেদন

শিশুর জন্মস্থান ও স্থায়ী ঠিকানা একই হলে , উপরের তীর চিহ্নিত বাটনে ক্লিক করুন অন্যথায় ঠিকানা নির্বাচন করুন।  

একই ভাবে, স্থায়ী ঠিকানা ও বর্তমান ঠিকানা একই হলে, তীর চিহ্নিত বাটনে ক্লিক করুন অন্যথায় ঠিকানা নির্বাচন করুন।  

সর্বশেষ, ‘পরবর্তী’ বাটনে ক্লিক করুন।  

পঞ্চম ধাপ: আবেদনকারীর প্রত্যয়ন 

জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে আবেদন
জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে আবেদন

যেহেতু নবাগত শিশুর জন্মনিবন্ধন আবেদ করা হচ্ছে , নিশ্চই এখানে শিশু নিজে আবেদন করছে না। তাই এখানে শিশুর যে অভিভাবক সাধারণত মা/বাবা তাদের প্রত্যয়ন ফর্ম পূরণ করতে হবে।  

শিশুর সাথে সম্পর্ক নির্বাচন করুন 

ফোন নম্বর দিন , মেইল দিন (যদি থাকে)

ষষ্ঠ ধাপ: সংযুক্তি কাগজপত্র আপলোড 

জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে আবেদন
জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে আবেদন

এখানে উপরের চিত্রের মতো ৫’ম ধাপের পিকচারের নিচে অংশে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র উপলোডের জন্য অপশন পাবেন।  ভালো হয় এই ধাপের আগেই প্রয়োজনীয় কাগজগুলি আপনার ডিভাইসে সেভ কোরে নিবেন।  মনে রাখবে, ফাইলের সাইজ যেন ১০০ কিলো বাইটের বেশি না হয়।  একাধিপ ফাইল দিতে চাইতে, সংযোগ বাটনে ক্লিক করবেন।  তারপর ‘Start’ বাটনে ক্লিক করলে আপলোড হয়ে যাবে।  

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন আবেদনপত্র প্রিন্ট 

জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে আবেদন
জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে আবেদন

উপরের সবগুলি ধাপ ভালোভাবে শেষ করলে “Success , আবেদনপত্রটি সফলভাবে সাবমিট হয়েছে” মেসেজটি দেখতে পারবেন।  

এবং, নিচের দিকে “আবেদন পত্র প্রিন্ট” বাটনে ক্লিক করে হার্ডকপি 

সংগ্রহ করতে পারবেন।  

যদিও, প্রিন্ট করা বাধ্যতামূলক নয়।  আবেদনের ১৫ দিনের মধ্যে আপনার সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদ বা পৌরসভা থেকে আবেদন পত্রের নম্বর দিয়ে জন্মনিবন্ধনের মূলকপি সংগ্রহ করতে পারবেন।  

 

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন আবেদন সম্পর্কিত প্রশ্ন উত্তর । FAQ on BD Birth Registration 

ইন্টারনেটে  জন্ম নিবন্ধন অনলাইন আবেদন , সম্পর্কিত অনেক ধরনের প্রশ্নের উত্তর খোজ হয়।  আমাদের পাঠকের সুবিধার্থে সবগুলি প্রশ্নের উত্তর দেওয়া হলো: 

জন্ম নিবন্ধন কখন করতে হয়?

জন্মের ৪৫ দিনের মধ্যে জন্ম নিবন্ধন করা বাধ্যতামূলক। তবে, ৫ বছরের মধ্যেও জন্ম নিবন্ধন করা যায়। ৫ বছরের পর জন্ম নিবন্ধন করতে হলে অতিরিক্ত কিছু কাগজপত্রের প্রয়োজন হয়।

জন্ম নিবন্ধন করতে হলে আবেদনকারীকে নিকটস্থ উপজেলা/থানা/সিটি কর্পোরেশন/পৌরসভা/ইউনিয়ন পরিষদের জন্ম নিবন্ধন অফিসে যেতে হবে। অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন করা যায়, যার বিস্তারিত নিয়ম উপরে বর্ণনা করা আছে।

জন্ম নিবন্ধন প্রতিলিপির জন্য আবেদন

জন্ম নিবন্ধন প্রতিলিপির জন্য আবেদন করার জন্য নিম্নলিখিত পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করুন:

জন্ম নিবন্ধন অফিসে যোগাযোগ করুন। আপনার স্থানীয় জন্ম নিবন্ধন অফিস আপনাকে একটি আবেদন ফর্ম দিবে যা আপনাকে পূরণ করতে হবে। আবেদন ফরমটি অনলাইনেও পাওয়া যায়।

জন্ম নিবন্ধন ফি কত টাকা?

২০২৩ সালের ১০ই অক্টোবর পর্যন্ত জন্ম নিবন্ধন ফি নিম্নরূপ:

  • জন্মের ৪৫ দিনের মধ্যে জন্ম নিবন্ধনের জন্য কোন ফি লাগে না।
  • ৪৬ দিন থেকে ৫ বছরের মধ্যে জন্ম নিবন্ধনের জন্য ২৫ টাকা ফি লাগে।
  • ৫ বছরের পর জন্ম নিবন্ধনের জন্য ৫০ টাকা ফি লাগে।

জন্ম নিবন্ধন প্রতিলিপির জন্য আবেদন ফি ১০০ টাকা। দ্রুত সরবরাহের জন্য অতিরিক্ত ২০০ টাকা ফি দিতে হবে।

জন্ম নিবন্ধন ফি অনলাইনে বা ব্যাংকের মাধ্যমে পরিশোধ করা যাবে।

নতুন জন্ম নিবন্ধন আবেদন করতে কি কি লাগে?

নতুন জন্ম নিবন্ধন আবেদন করতে নিম্ন লিখিত কাগজপত্র ও তথ্য প্রয়োজন:

জন্মের ৪৫ দিনের মধ্যে জন্ম নিবন্ধনের জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র:

  • জন্মস্থান ও জন্ম তারিখের প্রমাণ হিসাবে সংশ্লিষ্ট চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানের ছাড়পত্র অথবা বার্থ এটেন্ডেড এর প্রত্যয়ন বা অন্য কোন প্রমানপত্র।
  • ইউপি ট্যাক্স পরিশোধের রশিদের ফটোকপি।
  • পিতা ও মাতার জন্ম নিবন্ধন সনদ/জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি।

৫ বছরের মধ্যে জন্ম নিবন্ধনের জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র:

  • জন্মস্থান ও জন্ম তারিখের প্রমাণ হিসাবে ইপিআই কার্ডের ফটোকপি/ইপিআই কর্মীর প্রত্যয়ন।
  • ইউপি ট্যাক্স পরিশোধের রশিদের ফটোকপি।
  • পিতা ও মাতার জন্ম নিবন্ধন সনদ/জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি।

৫ বছরের পর জন্ম নিবন্ধনের জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র:

  • উপযুক্ত চিকিৎসক কর্তৃক প্রদত্ত প্রত্যয়নপত্র/সরকার কর্তৃক পরিচালিত প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী,জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট এবং শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক এসএসসি/এইচএসসি বা অনুরুপ পরীক্ষার শিক্ষাগত সনদপত্র।
  • ইউপি ট্যাক্স পরিশোধের রশিদের ফটোকপি।
  • পিতা ও মাতার জন্ম নিবন্ধন সনদ/জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি।

জন্ম নিবন্ধন করতে হলে আবেদনকারীকে নিকটস্থ উপজেলা/থানা/সিটি কর্পোরেশন/পৌরসভা/ইউনিয়ন পরিষদের জন্ম নিবন্ধন অফিসে যেতে হবে। অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন করা যায়, যার বিস্তারিত নিয়ম উপরে বর্ণনা করা আছে।

 

জন্ম নিবন্ধন আবেদন যাচাই

জন্ম নিবন্ধন আবেদন যাচাই করার জন্য নিম্নলিখিত পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করুন:

  • জন্ম নিবন্ধন অফিসের ওয়েবসাইটে যান।
  • “জন্ম নিবন্ধন আবেদন যাচাই” অপশনে ক্লিক করুন।
  • আপনার আবেদনপত্রের নম্বর প্রবেশ করুন।
  • আপনার আবেদনপত্রের অবস্থা দেখুন।

জন্ম নিবন্ধন আবেদন যাচাই করার জন্য একটি মোবাইল অ্যাপও রয়েছে। অ্যাপটি ডাউনলোড করে, আপনার আবেদন পত্রের নম্বর প্রবেশ করে, আপনি আপনার আবেদনপত্রের অবস্থা দেখতে পারেন।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে না থাকলে কি করতে হবে? 

এখন হাতে লেখা জন্ম নিবন্ধন বাতিল হয়েছে। তাই, অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন থাকা দরকার না থাকলে অফিসে যোগাযোগ করুন বা অনলাইনে আবেদন করুন। 

জন্ম নিবন্ধন আবেদন পত্র প্রিন্ট

জন্ম নিবন্ধন আবেদন পত্র প্রিন্ট করার জন্য নিম্নলিখিত প্রক্রিয়া অনুসরণ করুন:

  • জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে যান।
  • “জন্ম নিবন্ধন আবেদন পত্র” অপশনে ক্লিক করুন।
  • আপনার প্রয়োজনীয় তথ্য প্রবেশ করুন।
  • আপনার আবেদনপত্র পূরণ করুন।
  • আপনার আবেদন পত্রের কপি প্রিন্ট করুন।

পিতা মাতার জন্ম নিবন্ধন না থাকলে কিভাবে জন্ম নিবন্ধন আবেদন করা যাবে?

না, যাবে না। ২০২১ সালের ১ জানুয়ারি থেকে চালু হওয়া নতুন আইন অনুযায়ী, ২০০১ সালের পর জন্মগ্রহণকারীদের জন্ম নিবন্ধনের জন্য পিতা মাতার জন্ম নিবন্ধন বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এর ফলে পিতা মাতার জন্ম নিবন্ধন না থাকলে ২০০১ সালের পর জন্ম নেওয়া সন্তানের জন্ম নিবন্ধন করানো যাবে না।

জন্ম নিবন্ধন কোথায় করতে হয়?

জন্ম নিবন্ধন করার জন্য প্রথমে অনলাইনে আবেদন করতে হবে। আবেদনটি সফলভাবে জমা দেওয়ার পর, একটি ট্র্যাকিং নম্বর পাওয়া যাবে। এই ট্র্যাকিং নম্বরটি ব্যবহার করে আবেদনের অবস্থা পরীক্ষা করা যাবে। আবেদনটি অনুমোদিত হলে, প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস গুলো নিয়ে ইউনিয়ন পরিষদ, পৌরসভা বা সিটি কর্পোরেশন কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে জন্ম নিবন্ধন সম্পন্ন করতে হবে।

Also Read :

Related Post

খুশির স্ট্যাটাস

200+ স্টাইলিশ খুশির স্ট্যাটাস | হাসি নিয়ে ক্যাপশন

খুশির স্ট্যাটাস | হাসি নিয়ে ক্যাপশন জীবনের সুন্দর খুশির মুহূর্ত আমরা সবাই বাঁধাই করে রাখতে চাই। আর এই খুশির মুহূর্তকে ধরে রাখার সবচেয়ে সহজ উপায়

Read More »
❤love status bangla | ভালোবাসার ছন্দ | রোমান্টিক ছন্দ | প্রেম ছন্দ স্ট্যাটাস❤

স্টাইলিশ ভালোবাসার ছন্দ | রোমান্টিক ছন্দ | Love Status Bangla

❤❤ভালোবাসার ছন্দ | ভালোবাসার ছন্দ রোমান্টিক | ভালোবাসার ছন্দ স্ট্যাটাস❤❤ ভালোবাসা হলো এক অন্যরকম অনুভূতির নাম, যা শুধুমাত্র কাউকে ভালবাসলেই অনুভব করা যায়। আমরা বিভিন্নভাবে

Read More »
মন খারাপের স্ট্যাটাস

মন খারাপের স্ট্যাটাস, উক্তি, ছন্দ, ক্যাপশন, কিছু কথা ও লেখা

মন খারাপের স্ট্যাটাস মন খারাপ – এই কষ্টের অনুভূতি কার না হয়? সবারই কখনো না কখনো সবারই মন খারাপ হয়। জীবনের ছোটোখাটো অঘটন থেকে শুরু

Read More »
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রেমের উক্তি

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রেমের উক্তি

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রেমের উক্তি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে বলা হয় বিশ্বকবি। তিনি ছিলেন একজন বিচক্ষণ ও গুনী লেখক। প্রেম চিরন্তন এবং সত্য। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বাঙালীর মনে প্রেমের

Read More »
ব্রেকআপ স্ট্যাটাস বাংলা

ব্রেকআপ স্ট্যাটাস বাংলা | Breakup Status Bangla

ব্রেকআপ স্ট্যাটাস বাংলা আপনি কি আপনার প্রিয়জনের সাথে সম্পর্ক থেকে বের হয়ে এসেছেন? আর সেটা আপনি কোন ব্রেকআপ স্ট্যাটাস বাংলা মাধ্যমে বোঝাতে চাচ্ছেন। তাহলে আপনি

Read More »

Leave a Comment

Table of Contents