Dreamy Media BD

সাত দিনে মোটা হওয়ার উপায় 

সাত দিনে মোটা হওয়ার উপায় 

সাত দিনে মোটা হওয়ার উপায় 

স্বাস্থ্যকর ওজন সবারই কাম্য। অতিরিক্ত মোটা হতে কেউ যেমন চায় না ঠিক তেমনি অতিরিক্ত চিকন কারো কাম্য নয়। ব্যক্তিত্বপূর্ণ হতে কে না চায়? অতিরিক্ত হ্যাংলা পাতলা স্বাস্থ্য যেন ব্যক্তিত্বকেই নীরস করে তোলে। স্বাস্থ্য বাড়ানো কমানোর মতোই কঠিন মনে হতে পারে। তবে সঠিক ডায়েট মেনে স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস ও ব্যায়ামের মাধ্যমে ওজন বাড়ানো যায় এবং সেটি  দ্রুততার সাথে। আজকের এই আর্টিকেলে আমরা জানব সাত  দিনে মোটা হওয়ার উপায়। এর অর্থ এই নয় যে সাত দিনই আপনি মোটা হয়ে যাবেন। বরং একটি সুস্থ ও সুন্দর ডায়েটের মাধ্যমে  সাত দিন করে  ক্রম ধারা মেনে চলার মাধ্যমে আপনার ওজন ক্রমাগতভাবে বাড়তে থাকবে।

মোটা হওয়ার সহজ উপায় 

অনেকেই খুব দ্রুত মোটা হন আবার অনেকের ক্ষেত্রে খাওয়া-দাওয়া ঠিক থাকলেও মোটা হন না। তাই এখন আলোচনা করব যে পদ্ধতিতে খেলে খুব দ্রুত মোটা হতে পারবেন। সেগুলো হলো:

কার্বোহাইড্রেট যুক্ত খাবার 

ওজন বাড়াতে চাইলে প্রথমেই যুক্ত  করতে হবে কার্বোহাইড্রেট। কার্বোহাইড্রেট যুক্ত প্রধান খাবার হল ভাত ও রুটি। তাই খাবারের তালিকায় অবশ্যই এই দুটি খাবার  রাখতে হবে। প্রতিদিন অন্তত কার্বোহাইড্রেট দুইবার খেতে হবে। ভাত ও রুটি কার্বোহাইড্রেডের মেইন উৎস তার মানে এই নয় যে আপনি বেশি বেশি  ভাত ও  রুটি খাবেন। আপনি যাতে অতিরিক্ত ফ্যাট না হন সে বিষয়টিও খেয়াল রাখতে হবে।

ক্যলরিযুক্ত খাবার

ওজন কমানোর জন্য ক্যালরি বেশি খরচ করতে হবে এবং কম গ্রহণ করতে হবে। কিন্তু মোটা হতে চাইলে এর উল্টোটা করতে হবে। যতটা ক্যালরির বার্ন করবেন তাকে দ্বিগুণ ক্যালোরি   গ্রহণ করতে হবে তবে মাত্রাতিরিক্ত নয়। সহজে সাত দিনে মোটা হওয়ার উপায় হলো প্রতিদিন ৬০০ থেকে ৭০০ক্যালোরি গ্রহণ করতে হবে। মোটকথা একজন ব্যক্তির ওজন দ্রুত বৃদ্ধি করতে হলে শরীরের যতটুকু চাহিদা তার চেয়ে বেশি ক্যালোরি গ্রহণ করতে হবে। তবে যদি আপনি চান আপনার ওজন একটু আস্তে আস্তে প্রতিদিন ৪০০ থেকে ৫০০ ক্যালোরি গ্রহণ করবেন। এইভাবে নিয়মিত গ্রহণ করতে থাকলে সাতদিন পরে দেখবেন আপনার ওজন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

ব্যায়াম করুন

ওজন কমাতেই শুধু ব্যায়াম প্রয়োজন নয় বরং ওজন বৃদ্ধিতেও ব্যায়ম প্রয়োজন। ব্যায়াম বলতে দৌড়জাঁপ নয় বরং নিয়ম করে জিম করা। এক্ষেত্রে অভিজ্ঞ ট্রেনার দিয়ে জিম করতে হবে কেননা তারা ভালো জানে কোন ব্যায়াম ওজন বৃদ্ধিতে সহায়ক। তিনিই আপনার ওজন দেখে বলবেন কোনটি আপনার জন্য প্রয়োজন।

খাবারে প্রোটিন রাখা 

ওজন বৃদ্ধির জন্য শুধুমাত্র ক্যালোরি বা কার্বোহাইড্রেট যথেষ্ট নয়। এর পাশাপাশি পরিমিত পরিমাণ প্রোটিন খেতে হবে। ক্যালরির পাশাপাশি সঠিক প্রোটিন গ্রহণ না করলে ক্যালরির জন্য ফ্যাট বৃদ্ধি পাবে।তাই প্রতিদিন খাবারের  তালিকায় বিভিন্ন প্রোটিন জাতীয় খাবার রাখতে হবে যেমন ডাল, ডিম, দুধ ইত্যাদি।

বারবার খেতে হবে 

তিনবার বেশি করে খাওয়ার চেয়ে অল্প অল্প করে অনেকবার খাওয়া ভালো। কিন্তু যারা ওজন বৃদ্ধি করতে চাচ্ছেন তারা দুই ঘন্টা  পর পর অনেক বেশি করে খাবেন। ফল, দুধ, দই, ছানা ইত্যাদি খেতে পারেন। এই ফল গুলি আপনার শরীরের পুষ্টি বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে ওজনও বৃদ্ধি করবে। বেশি বেশি করে বারবার খেলে  দ্রুত মোটা হবেন।

ড্রাইফুটস খাবেন

ড্রাই ফুটসে র‍য়েছে প্রচুর ফ্যাট ও ক্যালরি যা ওজন বৃদ্ধিতে সহায়তা করে। তাই প্রতিদিন ঘুম থেকে ওঠার পর দুইটি কিসমিস ও দুইটি কাজুবাদাম খাবেন। এটি কখনোই মিস করা যাবে না। এছাড়াও সকালের নাস্তাই রাখুন পেস্তা বাদাম বা আমন্ড। প্রতিদিন নিয়ম করে চিনা বাদাম খাবেন। এই সবগুলি ড্রাইফুটস নিয়ম করে খেলে আপনার ওজন দ্রুত বৃদ্ধি পাবে। সাত দিনে মোটা হওয়ার উপায় হিসেবে ড্রাই ফুটস খুব বেশি কার্যকরী। তাই ওজন বৃদ্ধি করতে চাইলে  আজ থেকে ড্রাই ফুটস খেতে শুরু করুন।

ডায়েটে চকলেট এবং চিজ রাখতে হবে 

সাধারণত ফাস্টফুড খাবার খেতে সবাই নিষেধ করে। কিন্তু আপনি যদি ওজন বৃদ্ধি করতে চান তাহলে বেশি খেতে হবে যেমন পেস্ট্রি, বার্গার, আইসক্রিম,, কেক, চকলেট, চিজ ইত্যাদি। এই খাবারগুলোতে খুব বেশি ফ্যাট থাকে যা ওজন বৃদ্ধিতে সহায়ক। কিন্তু খেয়াল রাখতে হবে মাত্রাতিরিক্ত খেলে শরীরের জন্য খুব ক্ষতিকর। তবে আপনি নিয়ম করে পরিমাণ মতো এই খাবারগুলি আপনার খাদ্য তালিকায়  রাখতে পারেন। ফলাফল হিসেবে দেখবেন সাত দিন থেকেই আপনার ওজন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

পরিমিত পরিমান ঘুম 

সুস্থ ও সুন্দর জীবন যাপনের জন্য ঘুম খুবই প্রয়োজন। একজন ব্যক্তির প্রতিদিন মিনিমাম ৮ ঘন্টা  ঘুমোতে হবে। এবং চেষ্টা করতে হবে খুব ভোরে ঘুম থেকে উঠে ইয়োগা করতে হবে নিয়মিত। এটি আপনার ওজন বৃদ্ধিতে সহায়তা করবে।

ঘুমোতে যাওয়ার আগে দুধ ও মধু পান করুন 

ঘুমোনোর আগে এমন কিছু খাবার খেতে হবে যা পুষ্টিকর এবং ক্যালরিযুক্ত। কেননা ঘুমানোর আগে সেটি  খেলে আপনার শরীরে সারা রাত ক্যালরির কাজ করবে সাথে ওজনও বৃদ্ধি করবে। তাই প্রতিদিন নিয়ম করে ঘুমানোর আগে দুধ ও মধু মিক্সড করে খেতে হবে। এটি ওজন বৃদ্ধির সহজ ও পরীক্ষিত উপায়।

ওজন কম হওয়ার কারণ 

বিভিন্ন কারণেই ওজন কম হয়ে থাকে। জেনেটিক কারণ, অনিয়মিত খাদ্য অভ্যাস, মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যা, ক্যান্সার ডায়াবেটিস, ডায়রিয়া,  আর্থ্রাইটিস, হাইপারথাইরয়েডিজম,যক্ষ্মা, ড্রাগস, এইডস, ফুসফুসের সমস্যা ইত্যাদি। এছাড়াও বয়সের কারণে ওজন কম বেশি হতে পারে। তাই ওজন বাড়ানোর জন্য এই বিষয়গুলোর উপর গুরুত্ব দিতে হবে।

ওজন বাড়ানোর উপায়

প্রাকৃতিকভাবে ওজন বাড়লে শারীরিক ও মানসিক দুইভাবেই উপকার পাওয়া যাবে। ঘরোয়া ও আয়ুর্বেদিক প্রতিকারের মাধ্যমে ওজন বৃদ্ধির সাথে শরীর পুষ্টিও পাবে। কিছু সহজ ঘরোয়া সাত দিনে মোটা হওয়ার উপায় আলোচনা করা হলো:

দুধ ও মধু 

নিয়মিত সকালের নাস্তা ও রাতের ঘুমানোর আগে মধু দুধের সাথে মিশিয়ে খান। এতে ওজন বাড়বে সেইসাথে হজমশক্তি বৃদ্ধিতে সহায়ক হবে।

কলা 

কলা ওজন বাড়াতে সাহায্য করবে। প্রতিদিন অন্তত তিন থেকে চারটি কলা খাবেন ওজন বাড়াতে চাইলে। কলায় রয়েছে প্রায় সব পুষ্টিগুন। 

মটরশুঁটি 

মটরশুঁটি মোটা হওয়ার জন্য ওষুধ হিসেবে কাজ করে। সবজিতে বেশি বেশি মটরশুঁটি দিয়ে খেতে হবে। এটি ওজন বাড়ানোর পাশাপাশি পুষ্টিও দেবে।

কিসমিস

প্রায় ১০ গ্রাম কিসমিস পানিতে ৪ ঘন্টা ভিজিয়ে রাখুন। এরপর দুধ জ্বালিয়ে নিন এখন দুধটুকু ঠান্ডা করে কিসমিস মিশিয়ে খান। এটি খুব দ্রুত আপনার ওজন বৃদ্ধি করবে সাথে বিভিন্ন রোগকে প্রতিহত করবে।

 

খেজুর, ডুমুর ও বাদাম

তিন থেকে চারটি খেজুর, ডুমুর ও বাদাম দুধ এর সাথে সিদ্ধ করুন। প্রতিদিন ঘুমানোর আগে এই রেসিপি করে খান এরপর দেখুন ফলাফল। এটি মোটা হওয়ার জন্য একটি আয়ুর্বেদিক ওষুধ। 

খেজুর ও শসা

কয়েকটা খেজুর আর একটি শসা একসঙ্গে খান আশা করা যায় খুব ভালো রেজাল্ট আসবে। প্রতিদিন খেতে শুরু করুন সাত দিন যেতে না যেতেই ওজন বাড়তে শুরু করবে।

সাত দিনের মোটা হওয়ার ঔষধ এর নাম 

বিভিন্ন ধরনের ঔষধ রয়েছে যা সেবনের মাধ্যমে খাওয়ার রুচি বেড়ে যায় এবং খাওয়ার রুচি বেড়ে গেলে স্বাভাবিকভাবে ওজনও বৃদ্ধি পাবে।  

পিউটন সিরাপ 

খুব দ্রুত মোটা হতে চাইলে বা ওজন বৃদ্ধি করতে পিউটন সিরাপ খুবই কার্যকরী। শরীর ফিট ও মোটাতাজা করতে এই সিরাপটি আপনাকে সাহায্য করবে। এটি খাওয়ার মাধ্যমে আপনার রুচি বৃদ্ধি পাবে এবং পূর্বের তুলনায় অনেক বেশি খাবার খেতে পারবেন। আপনি নিজেই লক্ষ্য করবেন ওজন কত দ্রুত বাড়ছে। অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী ওষুধটি সেবন করবেন। 

রুচিবেট 

খাবারের রুচি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বিশেষ করে হ্যাংলা পাতলা মানুষদের খাওয়ার রুচি খুব কম থাকে। আর আপনি বেশি খাবার খেতে  না পারলে ওজনও বৃদ্ধি পাবে না। এই ওষুধটি সেবন করার মাধ্যমে আপনার খাওয়ার রুচি বৃদ্ধি হবে। রুচি বৃদ্ধি পেলে আপনি বেশি বেশি খেতে পারবেন ফলশ্রুতিতে আপনার ওজনও বৃদ্ধি পাবে। 

সিনকারা সিরাপ 

এই ওষুধটিও আপনার মুখের রুচি বৃদ্ধি করবে এবং ক্ষুধামন্দা দূর করে ক্ষুধা বৃদ্ধি করবে। ফলে আপনি বেশি বেশি খেতে পারবেন। আর বেশি খাবার গ্রহণের ফলে ওজনও বৃদ্ধি পাবে। 

পুদিনা সিরাপ 

এই সিরাপ এর মাধ্যমেও আপনার ওজন বাড়বে। এটি সেবনের মাধ্যমে আপনার খাওয়ার রুচি অনেক বেড়ে যাবে ফলস্বরূপ শরীরের ওজন দ্রুত বৃদ্ধি পাবে। 

আমরুদ প্লাস 

এটি মূলত আপনার শরীরের দুর্বলতা কাটিয়ে তুলবে এবং খাওয়ার চাহিদা বৃদ্ধি করে তুলবে। কিন্তু এই সিরাপটি আপনার শরীরের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে তাই এর পরিবর্তে সিনকারা সিরাপ বা কারমিনা সিরাপ খেতে পারেন। এসব সিরাপে কোন ক্ষতি নেই বরং আপনার ওজন বৃদ্ধি করবে দ্রুত। সিনকারা বা কারমিনা সিরাপ খাওয়া ভালো। এগুলো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া পাওয়া যায় নি বললেই চলে।

 

দ্রুত মোটা হওয়ার জন্য যেই সিরাপ খান না কেন ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী খেতে হবে নইলে আপনার জন্য শুভ মাও হতে পারে।

 

মোটা হওয়ার টিপস 

  • বেশি বেশি চর্বিযুক্ত ও কার্বোহাইড্রেট খাবার খান 
  • খাবারে ঘি ও মাখন মিক্সড করে খান 
  • দুধের সেক তৈরি করে পান করুন 
  • সময়মতো খেতে হবে
  • নিয়মমাফিক জিম করতে হবে
  • খাবার চিবিয়ে চিবিয়ে ভালোভাবে খেতে হবে
  • রাতজাগা  কমিয়ে ফেলুন
  • অত্যধিক চাপ এড়িয়ে চলুন
  • গোছানো জীবন-যাপনে অভ্যস্থ হোন

উপসংহার

 

আজ এই আর্টিকেলে আমরা দেখলাম সাতদিনে মোটা হওয়ার উপায় সহ যাবতীয় সব তথ্য। আশা করি এই আর্টিকেল পড়লেই সবকিছু বিস্তারিত জানতে পারবেন। তবে ডায়েট মেনে চলুন বা ওষুধ সেবন করুন যাই করুন না কেন ডাক্তারের পরামর্শ নেবেন। একজন বিশেষজ্ঞের পরামর্শ ব্যতীত কখনোই কোন ধরনের ওষুধ সেবন করবেন না কেননা এটি আপনার জন্য ক্ষতির কারণও হতে পারে। তবে সঠিক নিয়ম মেনে স্বাস্থ্যকর খাদ্য গ্রহণ করলে আপনার সুস্থতার পাশাপাশি ওজন দ্রুত বৃদ্ধি পাবে। এতে কোন প্রকারের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া থাকবে না।

বহুল জিজ্ঞাসিত প্রশ্ন

১. সাত দিনে মোটা হওয়ার উপায় কি?

উত্তর: সঠিকভাবে ডায়েট মেনে চললে সাত দিন থেকেই ওজন বৃদ্ধি পাবে।

২. মোটা হওয়ার ঘরোয়া উপায় কি কি?

উত্তর: দুধ ও মধু মিক্সড করে খাওয়া, শসা ও খেজুর খাওয়া, তেলযুক্ত খাবার ইত্যাদি।

৩. মোটা হওয়ার জন্য কোন ওষুধ আছে কি?

উত্তর: জি হ্যাঁ, বিভিন্ন ভিটামিন সিরাপ রয়েছে যা খাওয়ার রুচি বৃদ্ধি করে তবে ডাক্তারের পরামর্শ মেনে খেতে হবে।

৪. মোটা হওয়ার জন্য ব্যায়াম কি প্রয়োজন?

উত্তর: কিছু ব্যায়াম রয়েছে যেগুলোর মাধ্যমে দ্রুত মোটা হওয়া যায়।

Also read: মেয়েদের দ্রুত ওজন কমানোর  উপায়।

Related Post

খুশির স্ট্যাটাস

200+ স্টাইলিশ খুশির স্ট্যাটাস | হাসি নিয়ে ক্যাপশন

খুশির স্ট্যাটাস | হাসি নিয়ে ক্যাপশন জীবনের সুন্দর খুশির মুহূর্ত আমরা সবাই বাঁধাই করে রাখতে চাই। আর এই খুশির মুহূর্তকে ধরে রাখার সবচেয়ে সহজ উপায়

Read More »
❤love status bangla | ভালোবাসার ছন্দ | রোমান্টিক ছন্দ | প্রেম ছন্দ স্ট্যাটাস❤

স্টাইলিশ ভালোবাসার ছন্দ | রোমান্টিক ছন্দ | Love Status Bangla

❤❤ভালোবাসার ছন্দ | ভালোবাসার ছন্দ রোমান্টিক | ভালোবাসার ছন্দ স্ট্যাটাস❤❤ ভালোবাসা হলো এক অন্যরকম অনুভূতির নাম, যা শুধুমাত্র কাউকে ভালবাসলেই অনুভব করা যায়। আমরা বিভিন্নভাবে

Read More »
মন খারাপের স্ট্যাটাস

মন খারাপের স্ট্যাটাস, উক্তি, ছন্দ, ক্যাপশন, কিছু কথা ও লেখা

মন খারাপের স্ট্যাটাস মন খারাপ – এই কষ্টের অনুভূতি কার না হয়? সবারই কখনো না কখনো সবারই মন খারাপ হয়। জীবনের ছোটোখাটো অঘটন থেকে শুরু

Read More »
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রেমের উক্তি

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রেমের উক্তি

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রেমের উক্তি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে বলা হয় বিশ্বকবি। তিনি ছিলেন একজন বিচক্ষণ ও গুনী লেখক। প্রেম চিরন্তন এবং সত্য। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বাঙালীর মনে প্রেমের

Read More »
ব্রেকআপ স্ট্যাটাস বাংলা

ব্রেকআপ স্ট্যাটাস বাংলা | Breakup Status Bangla

ব্রেকআপ স্ট্যাটাস বাংলা আপনি কি আপনার প্রিয়জনের সাথে সম্পর্ক থেকে বের হয়ে এসেছেন? আর সেটা আপনি কোন ব্রেকআপ স্ট্যাটাস বাংলা মাধ্যমে বোঝাতে চাচ্ছেন। তাহলে আপনি

Read More »

Leave a Comment

Table of Contents