Dreamy Media BD

বেসনের ফেসপ্যাক

বেসনের ফেসপ্যাক

ত্বকের যত্নে কেমিক্যাল জাতীয় পদার্থ ব্যবহার করার থেকে ঘরোয়া উপাদান ব্যবহার করা ভালো। ঘরে থাকা বিভিন্ন উপাদান দিয়ে ফেসপ্যাক তৈরি করা যেতে পারে। এটি ত্বকের কোন ক্ষতি করে না বরং ত্বকের উজ্জ্বলতা ধরে রাখতে সাহায্য করে। ঘরে থাকা বেসনের সাহায্যে বিভিন্ন ফেসপ্যাক তৈরি করা যেতে পারে। 

বেসনের তৈরি ফেসপ্যাক এক্সফোলিয়েটর এর মত কাজ করে। তবে বেসনের ফেসপ্যাক ত্বকে ব্যবহার করার আগে কিছু নিয়ম জেনে রাখা জরুরি। বেসনের সঠিক ব্যবহার আপনার ত্বকে প্রাণচঞ্চলতা ধরে রাখতে সাহায্য করে। আজকের এই আর্টিকেলে আমরা বেসনের ফেসপ্যাক এর ব্যবহার নিয়ে আলোচনা করব। চলুন তাহলে শুরু করা যাক:

বেসনের  ১০ টি ফেসপ্যাক

প্রচন্ড গরমের কারণে আমাদের ত্বকে যেসব সমস্যা তৈরি হয় তা বেসনের ফেসপ্যাক ব্যবহার করার মাধ্যমে নিমিষেই দূর হয়ে যায়। চোখের নিচের ডার্ক সার্কেল, রোদে পোড়া দাগ, ব্রণের প্রকোপ ইত্যাদি কমাতে বেসনের জুড়ে মেলা ভার। বেসনের ফেসপ্যাক বানানোর জন্য বিশেষ কোন উপাদানের প্রয়োজন পড়ে না। রান্নাঘরে থাকা বিভিন্ন উপাদান দিয়ে ই বেসনের বিভিন্ন ফেসপ্যাক তৈরি করে ত্বকে ব্যবহার করা যায়। আসুন বেসনের ১০ টি ফেসপ্যাক সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক:

বেসন, হলুদ এবং টক দই দিয়ে ফেসপ্যাক তৈরি করুন

বেসন, হলুদ এবং টক দই এই প্রত্যেকটি উপাদান ত্বকের উজ্জ্বলতা ধরে রাখতে সাহায্য করে। এর আরো বেশ কিছু ভেজষ গুণ রয়েছে। তবে এই ফেসপ্যাক ব্যবহারের কিছু সাধারণ নিয়ম রয়েছে। নিয়ম মেনে ব্যবহার করলে ভালো ফলাফল পাওয়া যাবে। এই ফেসপ্যাক বানানোর সাধারণ কিছু উপকরণের নাম হল:

  • বেসন এবং দই এর পরিমাণ হবে তিন টেবিল চামচ এর সমান।
  • হলুদের পরিমাণ হবে এর তিনভাগের এক ভাগ। অর্থাৎ হলুদ লাগবে ১ টেবিল চামচ পরিমাণ।

ফেসপ্যাক বানানোর পদ্ধতি

সবগুলো উপকরণ একটি ব্লেন্ডার এ নিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করুন। মিশ্রণটি আপনার ত্বকে লাগিয়ে কিছুক্ষণ মেসেজ করুন। তারপর ২০ মিনিট লাগিয়ে রেখে ধুয়ে ফেলুন। গোসলের আগে ব্যবহার করতে পারেন।

উপকার

মিশ্রণটি সপ্তাহে অন্তত দুই দিন ব্যবহার করলে মুখের কালো দাগ দূর হবে। এছাড়া রোদে পোড়া দাগ এবং ত্বকের টেক্সচার ঠিক করতে মিশ্রণটি উপযোগী।

বেসন ও কেশর দিয়ে ফেস প্যাক তৈরি করুন

বেসন ও কেশরের তৈরি ফেসপ্যাক মুখের গভীরের কালো দাগ দূর করতে সাহায্য করে। এবং গভীর থেকে ময়লা দূর করে। এটি নিয়মিত ব্যবহারে ত্বকের প্রাণ চাঞ্চল্য ফিরে আসে। বেসন ওকে সর দিয়ে ফেসপ্যাক তৈরি করার উপকরণ গুলো হলো:

  • বেসন
  • কেশর
  • পানি

ফেসপ্যাক বানানোর পদ্ধতি

৩ থেকে ৪ টেবিল চামচ বেসন এবং দুই থেকে তিনটি কেশর একসঙ্গে নিয়ে পানি দিয়ে গুলিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করুন। আপনার শরীরে যেসব স্থানে কালো দাগ রয়েছে সেসব স্থানে এটি এপ্লাই করতে পারেন। ২০ মিনিট রেখে গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

উপকারিতা

এই মিশ্রণটি ত্বককে হাইড্রেট রাখতে সাহায্য করে এবং ত্বকের গ্লো ফিরিয়ে আনে।

দুধের সর এবং বেসন দিয়ে ফেস প্যাক তৈরি করুন

দুধের সর এবং বেসন এই দুইটি উপাদানই প্রাকৃতিকভাবে ক্লিনজার এর মত কাজ করে। অনেক বছর আগে থেকেই রূপচর্চায় এই দুইটি উপাদান ব্যবহার করা হয়। দুধের সর এবং বেসন দিয়ে ফেস প্যাক তৈরি করার উপকরণ গুলো হলো:

  • পরিমাণ মতো দুধের সর,
  • এক টেবিল চামচ হলুদ,
  • ২ টেবিল চামচ বেসন,
  • ঠান্ডা পানি।

ফেসপ্যাক বানানোর পদ্ধতি

উপরে উল্লেখিত সবগুলো উপকরণ একটি পাত্রে নিয়ে মুখে এপ্লাই করার মতো ঘন একটি মিশ্রণ তৈরি করুন। শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। শুকিয়ে গেলে অবশ্যই ঠান্ডা পানি দিয়ে ত্বক পরিষ্কার করে নিন।

উপকারিতা

এই মিশ্রণটির ত্বকের আর্দ্রতা বৃদ্ধি করতে এবং ত্বককে বিভিন্ন সংক্রমণের হাত থেকে রক্ষা করে।

বেসন ও কমলালেবু দিয়ে ফেসপ্যাক তৈরি করুন

বেসন ও কমলালেবুর তৈরি ফেসপ্যাক ত্বকের অক্সিজেন ধরে রাখতে সাহায্য করে। এই ফেসপ্যাকটি বানানো সাধারণ উপকরণ গুলোর নাম হল:

  • পরিমাণ মতো বেসন,
  • মাঝারি সাইজের একটি কমলেবুর রস।

ফেসপ্যাক বানানোর পদ্ধতি

পরিমাণ মতো বেসন নিয়ে তাতে কমলালেবুর রস যোগ করুন। মুখে এপ্লাই করা যাবে এমন একটি ঘনত্ব তৈরি করুন। তারপর আপনার ত্বকে শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত লাগিয়ে রাখুন। শুকিয়ে গেলে পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে নিন।

উপকারিতা

এটি ত্বকের এন্টিঅক্সিডেন্ট ধরে রাখতে সাহায্য করে। ত্বকে হাইড্রেট রাখে এবং ত্বকের জৌলস ফিরিয়ে আনে।

বেসন ও মুলতানি মাটি দিয়ে ফেস প্যাক

বেসন ও মুলতানি মাটি দিয়ে ফেসপ্যাক তৈরি করা সাধারণ উপকরণ গুলোর নাম হলো:

  • বেসন,
  • মুলতানি মাটি,
  • গোলাপজল,
  • দুধ।

ফেসপ্যাক বানানোর পদ্ধতি

বেসন এবং মুলতানি মাটি পরিমাণ মতো নিয়ে তাতে অল্প অল্প করে দুধ এবং গোলাপজল যোগ করুন। ঠিকঠাক ঘনত্ব তৈরি হলে মুখে এপ্লাই করে ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। পরে নরমাল পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

উপকারিতা

এই উপকরণটি ত্বকের এলার্জি রোধ করতে সাহায্য করে। তৈলাক তো ত্বকের ওপেন পোরস দূর করতে এই ফেসপ্যাকটির জুড়ি নেই।

মুলতানি মাটি
মুলতানি মাটি

টমেটো ও বেসনের তৈরি ফেসপ্যাক

এই ফেসপ্যাক টি বানানোর জন্য যেসব উপকরণ প্রয়োজন তা হল:

  • একটি টমেটো,
  • পরিমাণ মতো বেসন।

ফেসপ্যাকটি তৈরীর নিয়ম

টমেটো এবং বেসন ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন। মিশ্রণটি আপনার ত্বকের বিভিন্ন স্থানে ব্যবহার করতে পারেন। শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করুন।

উপকারিতা

এই মিশ্রণটি ত্বকের বলিরেখা দূর করতে সাহায্য করে এবং ত্বকের পিএইচ এর মাত্রা ঠিক রাখে।

অ্যালোভেরা ও বেসনের তৈরি ফেসপ্যাক

উপকরণ

  • এক টেবিল চামচ এলোভেরা জেল,
  • পরিমাণ মতো বেসন।

ফেসপ্যাক বানানোর পদ্ধতি

উপকরণ দুটি একসঙ্গে মিক্স করে একটি মিশ্রণ তৈরি করে ত্বকে ১০ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। শীতকালে এপ্লাই করলে ভালো ফলাফল পাবেন।

উপকারিতা

এই উপকরণটি ত্বকের প্রদাহ দূর করতে সাহায্য করে। ফাইন্ড লাইন এবং এন্টি ব্যাকটেরিয়াল মোকাবেলায় সাহায্য করে।

অ্যালোভেরা
অ্যালোভেরা

ডিম এবং বেসনের তৈরি ফেসপ্যাক

উপকরণ:

  • ডিমের সাদা অংশ,
  • মধু,
  • পরিমাণ মতো বেসন।

ফেসপ্যাক তৈরির নিয়ম

মধু এবং ডিমের সাদা অংশ ভালো করে ফেটিয়ে এর মধ্যে পরিমাণ মতো বেসন এড করুন। শুকিয়ে গেলে নরমাল পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

উপকারিতা

এটি ত্বকের ব্ল্যাকহেড, কালচেভাব,‌রোদে পোড়া দাগ এবং অবাঞ্ছিত লোম দূর করতে সাহায্য করে।

বেসন ও অ্যাভোকাডো দিয়ে ফেস প্যাক

 উপকরণ:

  • একটি অ্যাভোকাডো,
  • পরিমাণ মতো বেসন।

ফেসপ্যাক তৈরির নিয়ম

বীজ থেকে এভোকাডো আলাদা করে বেসন দিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করুন। মুখে লাগিয়ে রেখে ৩০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।

উপকারিতা

এটি ত্বকের মরা কোষ দূর করতে সাহায্য করে। এবং মুখে রক্ত সঞ্চালনের মাত্রা বজায় রাখে।

বেসন ও পাকা পেঁপে দিয়ে ফেসপ্যাক তৈরি করুন

উপকরণ:

  • তিন টেবিল চামচ বেসন 
  • কয়েক টুকরা পাকা পেঁপে।

ফেস প্যাকটি বানানোর নিয়ম

পাকা পেঁপে এবং বেসন দিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করে নিন। দশ মিনিট ত্বকে মেসেজ করে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে অন্তত দুই দিন ব্যবহার করুন।

উপকারিতা

ত্বকের মসৃণতা বাড়াই এবং ত্বকের ডার্ক সার্কেল দূর করতে সাহায্য করে।

তৈলাক্ত ত্বকের জন্য বেসনের ফেসপ্যাক

তৈলাক্ত ত্বকের অতিরিক্ত তেল শুষে নেওয়ার জন্য বেসন খুব কার্যকরী একটি উপাদান। একটি পাত্রে পরিমাণ মতো বেসন, দুধের সর, টক দই এবং মুলতানি মাটি একসঙ্গে মিশিয়ে একটি ঘন মিশ্রণ তৈরি করুন। মিশ্রণটি যেন পাতলা না হয় সেদিকে খেয়াল রাখবেন। 

মিশ্রণটির ঘন তো ঠিক থাকলে মুখে এপ্লাই করতে সুবিধা হবে এবং সঠিক কার্যকারিতা পাবেন। এই ফেসপ্যাক টি মুখে ১০ মিনিট মাসাজ করার পর ধুয়ে ফেলুন। গলায় অথবা ঘাড়েও ব্যবহার করতে পারেন। এটি ত্বকের কালো দাগ দূর করার পাশাপাশি অতিরিক্ত তেল শুষে নেবে। তৈলাক্ত ত্বকের জন্য বেসনের ফেসপ্যাক খুব কার্যকরী একটি উপাদান।

শীতে বেসনের ফেসপ্যাক

বেসন ও চিনি দিয়ে ফেসপ্যাক তৈরি করে ত্বকে কিছুটা সময় লাগিয়ে রাখতে পারেন। বেসন এবং চিনি এর সাথে কিছুটা পরিমাণ পানি এড করুন। মোটা দানার চিনি নেওয়ার চেষ্টা করবেন। ৮ থেকে ১০ মিনিট মেসেজ করার পর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি ত্বকে স্ক্রাব এর কাজ করবে এবং শীতে ত্বক মোশ্চারাইজ রাখতে সাহায্য করবে। শীতে বেসনের ফেসপ্যাক ত্বকের দীর্ঘস্থায়ী মশ্চারাইজার প্রদান করে।

ছেলেদের জন্য বেসনের ফেসপ্যাক

ছেলেরা তোকে এপ্লাই করার জন্য বেসনের একটি ফেসপ্যাক তৈরি করে নিতে পারেন। বেসন ও টমেটো একসঙ্গে ব্লেন্ড করে একটি মিশ্রণ তৈরি করে মুখে দশ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। এটি ত্বকের রুক্ষতা দূর করবে এবং ত্বকের কালো দাগ এবং বলিরেখা দূর করতে কার্যকর ভূমিকা পালন করবে।

বেসনের ফেসপ্যাক দিয়ে ফর্সা হওয়ার উপায়

৪ টেবিল চামচ বেসনের সঙ্গে এক টেবিল চামচ ২ টেবিল চামচ বাদাম তেল, এবং পাঁচ থেকে ছয় টেবিল চামচ কাঁচা দুধ ব্যবহার করে একটি ফেসপ্যাক তৈরি করুন। মুখে লাগিয়ে রেখে ধোয়ার সময় উষ্ণ গরম পানি ব্যবহার করুন। এই ফেসপ্যাক টি নিয়মিত অথবা সপ্তাহের চার দিন ব্যবহারে ত্বক হয়ে উঠবে ফর্সা এবং প্রাণবন্ত।

সবশেষ

যুগ যুগ ধরে বেসনে তৈরি ফেসপ্যাক রূপচর্চায় ব্যবহৃত হয়ে আসছে। এটি ত্বকের কাজ দূর করে এবং রাতারাতি জেল্লা বাড়িয়ে তুলতে সাহায্য করে। রুক্ষ বা শুষ্ক অথবা তৈলাক্ত ত্বক যেকোনো অবস্থাতেই আপনি মুখে বেসনের ফেসপ্যাক এপ্লাই করতে পারবেন।

 ত্বকের যেকোনো সমস্যাই বেসন ব্যবহার করা যায় এবং এর কোন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই। আজকের এই আর্টিকেলে আমরা বেসনের ফেসপ্যাক সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করার চেষ্টা করেছি। সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়লে আশা করি আপনারা উপকৃত হবেন।

আরো পড়ুন –

Related Post

খুশির স্ট্যাটাস

200+ স্টাইলিশ খুশির স্ট্যাটাস | হাসি নিয়ে ক্যাপশন

খুশির স্ট্যাটাস | হাসি নিয়ে ক্যাপশন জীবনের সুন্দর খুশির মুহূর্ত আমরা সবাই বাঁধাই করে রাখতে চাই। আর এই খুশির মুহূর্তকে ধরে রাখার সবচেয়ে সহজ উপায়

Read More »
❤love status bangla | ভালোবাসার ছন্দ | রোমান্টিক ছন্দ | প্রেম ছন্দ স্ট্যাটাস❤

স্টাইলিশ ভালোবাসার ছন্দ | রোমান্টিক ছন্দ | Love Status Bangla

❤❤ভালোবাসার ছন্দ | ভালোবাসার ছন্দ রোমান্টিক | ভালোবাসার ছন্দ স্ট্যাটাস❤❤ ভালোবাসা হলো এক অন্যরকম অনুভূতির নাম, যা শুধুমাত্র কাউকে ভালবাসলেই অনুভব করা যায়। আমরা বিভিন্নভাবে

Read More »
মন খারাপের স্ট্যাটাস

মন খারাপের স্ট্যাটাস, উক্তি, ছন্দ, ক্যাপশন, কিছু কথা ও লেখা

মন খারাপের স্ট্যাটাস মন খারাপ – এই কষ্টের অনুভূতি কার না হয়? সবারই কখনো না কখনো সবারই মন খারাপ হয়। জীবনের ছোটোখাটো অঘটন থেকে শুরু

Read More »
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রেমের উক্তি

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রেমের উক্তি

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রেমের উক্তি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে বলা হয় বিশ্বকবি। তিনি ছিলেন একজন বিচক্ষণ ও গুনী লেখক। প্রেম চিরন্তন এবং সত্য। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বাঙালীর মনে প্রেমের

Read More »
ব্রেকআপ স্ট্যাটাস বাংলা

ব্রেকআপ স্ট্যাটাস বাংলা | Breakup Status Bangla

ব্রেকআপ স্ট্যাটাস বাংলা আপনি কি আপনার প্রিয়জনের সাথে সম্পর্ক থেকে বের হয়ে এসেছেন? আর সেটা আপনি কোন ব্রেকআপ স্ট্যাটাস বাংলা মাধ্যমে বোঝাতে চাচ্ছেন। তাহলে আপনি

Read More »

Leave a Comment

Table of Contents