Dreamy Media BD

ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম 

ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম 

ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম 

ভূমিকা 

ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশের বেসরকারি তবে খুব  জনপ্রিয় ব্যাংক। বলা যায় সবার শীর্ষে ইসলামী ব্যাংকের অবস্থান গ্রাহক নির্ভরতায়। বিশেষ করে ধর্ম প্রিয় মুসলিমদের কাছে ইসলামী ব্যাংক যেন একমাত্র ভরসা টাকা জমানোর জন্য। অনেকেই জানেন না কিভাবে ইসলামী ব্যাংকে একাউন্ট খুলতে হয়। প্রায় সব ব্যাংকের একাউন্ট খোলার নিয়ম প্রায় এক রকম। এজন্য প্রয়োজন হয় অ্যাকাউন্ট হোল্ডারের দরকারি ডকুমেন্টস ও যাকে নমিনি করা হবে তার কিছু ডকুমেন্টস। আজ এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আমরা জেনে নেব ইসলামী ব্যাংকে একাউন্ট খোলার নিয়ম সম্পর্কে।

ইসলামী ব্যাংকে আ্যকাউন্টের ধরন বা প্রকারভেদ 

যারা ইসলামী ব্যাংকে একাউন্ট করতে চান তাদের আগে ঠিক করতে হবে আপনি কোন ধরনের অ্যাকাউন্ট খুলতে চান। কেননা বিভিন্ন ধরনের অ্যাকাউন্ট রয়েছে এটি নির্ভর করবে আপনি কোন ধরনের অ্যাকাউন্ট করতে চান। ইসলামী ব্যাংকে মোট তিন ধরনের আ্যকাউন্ট রয়েছে। সেগুলি হল-

  • সেভিংস অ্যাকাউন্ট
  • কারেন্ট একাউন্ট ও 
  • স্টুডেন্ট একাউন্ট 

ইসলামী ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খুলতে চাইলে যেকোনো ইসলামী ব্যাংকের  ব্রাঞ্চ এ গিয়ে এই তিন প্রকারের অ্যাকাউন্ট সহজেই খুলতে পারবেন।

ইসলামী ব্যাংক আ্যাকাউন্ট খোলার নিয়ম 

যেকোনো নিকটস্থ ইসলামী ব্যাংকে এর শাখায় গিয়ে সমান সংগ্রহ করে নিবেন। এছাড়াও অনলাইনের মাধ্যমে ফরম ডাউনলোড করে নেওয়া যায়। উপরে উল্লেখিত এই তিন ধরনের অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য প্রায় একরকম ডকুমেন্ট দরকার হবে। এখন আমরা আলোচনা করব ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম সম্পর্কে-

সেভিংস অ্যাকাউন্ট খোলার নিয়ম 

ইসলামী ব্যাংকের সবচেয়ে জনপ্রিয় একাউন্ট হলো সেভিংস অ্যাকাউন্ট। কেননা সেভিংস অ্যাকাউন্টে টাকা জমা রেখে হালালভাবে লাভ করতে পারে। সঞ্চয়ী একাউন্ট বা সেভিংস একাউন্ট খোলার জন্য বেশ কিছু ডকুমেন্ট জমা দিতে হয়। যে সব প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট লাগে-

  • জাতীয় পরিচয় পত্র বা পাসপোর্ট এর ফটোকপি এর মধ্যে যেকোনো একটি 
  • সদ্য তোলা ব্যক্তির দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের সত্যায়িত করা ছবি 
  • যাকে নমিনি করা হবে তার জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি 
  • নমিনের পাসপোর্ট সাইজের এক কপি সত্যায়িত ছবি 
  • মিনিমাম ১০০০ টাকা জমা দিতে হবে একাউন্ট সচল রাখার জন্য 
  • যে ব্যক্তি অ্যাকাউন্ট করবেন অবশ্যই তার সিগনেচার বা স্বাক্ষর দিতে হবে।

এই ডকুমেন্টগুলি নিয়ে ইসলামী ব্যাংকের যেকোন সংখ্যায় গিয়ে ফর্ম পূরণ করে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা দিতে হবে। এরপর যেসব জায়গায় স্বাক্ষর প্রয়োজন ফর্মটিতে স্বাক্ষর করতে হবে। সঙ্গে ফিঙ্গারপ্রিন্টও দিতে হবে। এ সবগুলি কাজের পর অ্যাকাউন্ট সচল রাখার জন্য এক হাজার টাকা জমা দিতে হবে। এরপর ব্যাংক এজেন্ট কর্তৃক আপনাকে চেক বই  প্রদান করবেন এবং আপনার অ্যাকাউন্ট নাম্বার দিবেন। 

 

প্রাতিষ্ঠানিক সেভিংস অ্যাকাউন্ট খুলতে হলে যা প্রয়োজন 

আপনার প্রতিষ্ঠানটি কেমন সেই ধরন অনুযায়ী ইসলামী ব্যাংকে সেভিংস অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য ডকুমেন্ট লাগবে।

  • শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এর জন্য ম্যানেজিং কমিটি কর্তৃক রেজুলেশন লাগবে 
  • কম্পানি হলে মেমোরেন্ডাম আর্টিকেল অফ অ্যাসোসিয়েশন থেকে সত্যায়িত অনুলিপি লাগবে।

কারেন্ট আ্যাকাউন্ট খোলার নিয়ম 

কারেন্ট আ্যাকাউন্ট খুলার জন্য জানতে হবে ইসলামি ব্যাংকে আ্যাকাউন্ট খোলার নিয়ম। কারেন্ট আ্যকাউন্ট খুলে মূলত ব্যবসায়ীরা। কারণ এই অ্যাকাউন্ট থেকে কোন রকম লাভ পাওয়া যায় না। ব্যবসায়ীদের ব্যবসায়ের জন্য প্রায় টাকা উঠাতে হয়। তারা আনলিমিটেড টাকা তুলতে পারে বিনামূল্য  এজন্য কারেন্ট একাউন্ট সবচেয়ে উপযোগী। কারেন্ট একাউন্ট খোলার জন্য সব ডকুমেন্টের প্রয়োজন হবে-

  • পাসপোর্টের ফটোকপি বা জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি।
  • পাসপোর্ট সাইজের দুই কপি সত্যায়িত করা ছবি। 
  • নমিনের জাতীয়  পরিচয়পত্রের এক  কপি ফটোকপি।
  • নমিনের পাসপোর্ট সাইজের সত্যায়িত করা এক কপি ছবি। 
  • অ্যাকাউন্ট হোল্ডারের এবং স্বাক্ষর। 
  • নূনতম এক হাজার টাকা ইনস্ট্যান্ট ডিপোজিট।

 

স্টুডেন্ট একাউন্ট খোলার নিয়ম 

ইসলামী ব্যাংকে স্টুডেন্ট একাউন্ট খুলতে কিছু প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট লাগে। সেগুলি হল-

  • পাসপোর্ট সাইজের দুই কপি ছবি তবে শিক্ষার্থীর বয়স ১৮ বছর না হলে দুই অভিভাবকের দুই কপি ছবি লাগবে। 
  • শিক্ষার্থীর পাসপোর্ট /জাতীয় পরিচয় পত্র/ সার্টিফিকেট অথরিটি হতে সার্টিফিকেট এগুলোর মধ্যে যেকোন একটি হোলি হবে। 
  • নমিনের সত্যায়িত করা এক কপি ছবি। 
  • ১০০ টাকার ইনস্ট্যান্ট ডিপোজিট। 
  • অ্যাকাউন্ট হোল্ডার এর স্বাক্ষর এবং আঙুলের ছাপ লাগবে। 

তবে ১৮ বছরের কম বয়সীদের জন্য উপরে উল্লেখিত  ডকুমেন্ট থাকলে শিক্ষার্থীরা তাদের অভিভাবককে সাথে করে ব্যাংকে নিয়ে গিয়ে স্টুডেন্ট আ্যকাউন্ট করতে  পারবে ইসলামী ব্যাংকে।

ব্যাংক চার্জ  এর ছবি

 

ইসলামী ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খোলার ধাপসমূহ 

ইসলামী ব্যাংক এর ফরম পূরণের জন্য যেসব ধাপ গুলি অনুসরণ করতে হবে সেগুলি নিচে আলোচনা করা হলো-

প্রথম ধাপ

প্রথমত আপনি স্থানীয় ইসলামী ব্যাংকের সরাসরি যাবেন এবং সেখানে গিয়ে ব্যাংক এজেন্টের সাথে অ্যাকাউন্ট খোলার ব্যাপারে কথা বলে নিবেন। প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে গিয়েছেন কিনা সে সম্পর্কে এজেন্ট আপনাকে জিজ্ঞেস করবে। 

দ্বিতীয় ধাপ 

ইসলামী ব্যাংকের এজেন্ট এরপর আপনাকে একটি ফ্রম প্রদান করবে। যেটি সঠিক তথ্য দেওয়ার মাধ্যমে পূরণ করতে হবে। আপনার জাতীয় পরিচয় পত্রে যে তথ্য দেওয়া আছে সে অনুযায়ী ফরমটি পূরণ করবেন অথবা জন্ম নিবন্ধন এর তথ্য অনুযায়ী ফরম পূরণ করবেন। 

তৃতীয় ধাপ 

ফর্মটি পূরণ করা হলে ভালোভাবে একবার চেক করে নিন তথ্যগুলি সঠিক আছে কিনা। এরপর প্রয়োজনীয় কাগজপত্র গুলো ফোনটির সাথে পিন আপ করে জমা দিন। 

চতুর্থ ধাপ 

একাউন্ট খোলার জন্য ধার্যকৃত চার্জ নির্দিষ্ট রয়েছে ব্যাংক কর্তৃক  সেটি আপনাকে দিতে হবে। যেমন অ্যাকাউন্ট খুলতে যাচ্ছেন সেই অনুযায়ী চার্জ দিতে হবে। 

পঞ্চম ধাপ 

এই পর্যায়ে ব্যাংকে এজেন্ট সমস্ত কাগজপত্র ভালোভাবে যাচাই করে দেখবে এবং সঠিক থাকলে অ্যাকাউন্ট খুলে দেবে। 

ষষ্ঠ ধাপ 

শেষ পর্যায়ে একাউন্টটি খোলার পর আপনার মোবাইল নাম্বারে একটি কোড পাঠাবে। এই কোড দিয়ে আপনি আপনার এটিএম কার্ড গ্রহণ করতে পারবেন।

 

ইসলামী ব্যাংকের নীতিমালা 

প্রতিটি ব্যাংকের এ নিজস্ব কিছু নীতিমালা রয়েছে। সেই নীতিমালার ওপর ভিত্তি করে যেকোন প্রতিষ্ঠান টিকে থাকে। আপনি যদি ইসলামী ব্যাংকে একাউন্ট খুলতে চান অথবা ইসলামী ব্যাংকের নিয়মিত গ্রাহক হন  তাহলে অবশ্যই আপনাকে সে নীতিমালা সম্পর্কে জানতে হবে। ইসলামী ব্যাংকের নীতিমালা গুলি নিচে উল্লেখ করা হলো:

  • ইসলামী ব্যাংক ইসলামিক অনুশাসনের মাধ্যমে পরিচালিত 
  • ইসলামী ব্যাংকে তাকে গ্রহীতা না বলে বিনিয়োগকারী বলে বিবেচনা করা হয়। অর্থ সঞ্চয়ের জন্য সবচেয়ে বিশ্বস্ত ব্যাংক হচ্ছে ইসলামী ব্যাংক। আপনি যদি টাকা সঞ্চয় করতে চান তবে নিরাপত্তার সথে ইসলামী ব্যাংকে যোগাযোগ করুন। এছাড়া ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম জানার সঙ্গে নীতিমালা গুলো জেনে নিন এটি আপনার কাজে লাগবে।
  • ইসলামী ব্যাংকে যে কোন প্রকারের লোনে সুদ গ্রহণ করা হয় না। 
  • ইসলামী ব্যাংক চুক্তিতে নীতিমালা গ্রহণ করে এবং সেটি অবশ্যই ইসলামিক পদ্ধতিতে। 
  • ইসলামী ব্যাংকের ব্যাংকিং সব রকমের সেবা খাত ইসলামী শরিয়াহ অনুযায়ী পরিচালনা করা হয়। 
  • লোন প্রদানের পূর্বে ইসলামী ব্যাংক যাচাই-বাছাই করে থাকে। ইসলামী ব্যাংকের যে নীতিমালা গুলি রয়েছে এর বাইরে কোন প্রকারের লোন সুবিধা থাকলে সেসব গ্রহণ  করা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ।

ইসলামী ব্যাংক আ্যকাউন্টে ব্যালেন্স চেক করার নিয়ম 

ইসলামী ব্যাংকে আ্যকাউন্ট খুললে অবশ্যই আ্যকাউন্টে কিভাবে ব্যালেন্স চেক করতে হয় সেটিও আপনাকে জানতে হবে। এসএমএস এর মাধ্যমে আপনি ব্যালেন্স চেক করতে পারবেন। নিচে যে কোডের মাধ্যমে ব্যালেন্স চেক করা যায় তা দেওয়া হল-

IBB <space> BAL<space> Send to:26969

অর্থাৎ IBB BAL লিখার পর পাঠিয়ে দিতে হবে 26969 নম্বরে। এভাবে খুব সহজেই ব্যালেন্স চেক করা যায়। 

উপসংহার 

সব রকমের ব্যাংক প্রায় এক রকমের সুবিধা গ্রাহকদের দিয়ে থাকে কিন্তু ইসলামী ব্যাংক কিছু আলাদা বা বিশেষ সেবা দিয়ে থাকে গ্রাহকদের। বিশেষ করে সুদভিত্তিক ব্যাংকে একাউন্ট করতে না চাইলে আপনি নিশ্চিন্তে ইসলামী ব্যাংকে আ্যকাউন্ট খুলতে পারেন। ইসলামী ব্যাংকে অ্যাকাউন্ট খুলতে চাইলে আপনার পার্শ্ববর্তী ব্যাংকে গিয়ে অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন। এই বিষয়ে আমরা উপরে বিস্তারিত আলোচনা করেছি। তবে ইসলামী ব্যাংকে আ্যকাউন্ট খুলতে চাইলে প্রথমে ইসলামী ব্যাংক আ্যকাউন্ট খোলার নিয়ম সম্পর্কে ভালোভাবে জেনে নিতে হবে। আশা করি এই আর্টিকেল পড়ার পর ইসলামী ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খোলার নিয়মগুলি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন।

বহুল জিজ্ঞাসিত প্রশ্ন

১. ইসলামি ব্যাংকের সেবাগুলো কি কি?

উত্তর: অন্যান্য ব্যাংকে যেমন সেবা দেওয়া হয় ইসলাম ব্যাংকেও সেসব সেবা দিয়ে থাকে। এছাড়াও স্টুডেন্ট একাউন্ট এর জন্য বিশেষ সুবিধা দিয়ে থাকে। 

২. অনলাইনে ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খোলা যায় কিনা? 

উত্তর: হ্যাঁ যায়।সেলফির নামে একটি মোবাইল অ্যাপ রয়েছে যার মাধ্যমে ঘরে বসে ইসলামী ব্যাংকে একাউন্ট করা যায়। 

৩. ইসলামী ব্যাংক এজেন্ট ব্যাংকিং চালু আছে কিনা? 

উত্তর: হ্যাঁ আছে। অন্যান্য সকল ব্যাংকের মতো ইসলামিক ব্যাংকেও এজেন্ট ব্যাংকিং চালু রয়েছে। 

৪. ইসলামী ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা কে? 

উত্তর: ইসলামী ব্যাংকের মূল প্রতিষ্ঠাতা হলেন মীর কাসেম আলী।

Also Read: কেন্দ্রীয় ব্যাংক কি এবং কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কাজ কি

Related Post

খুশির স্ট্যাটাস

200+ স্টাইলিশ খুশির স্ট্যাটাস | হাসি নিয়ে ক্যাপশন

খুশির স্ট্যাটাস | হাসি নিয়ে ক্যাপশন জীবনের সুন্দর খুশির মুহূর্ত আমরা সবাই বাঁধাই করে রাখতে চাই। আর এই খুশির মুহূর্তকে ধরে রাখার সবচেয়ে সহজ উপায়

Read More »
❤love status bangla | ভালোবাসার ছন্দ | রোমান্টিক ছন্দ | প্রেম ছন্দ স্ট্যাটাস❤

স্টাইলিশ ভালোবাসার ছন্দ | রোমান্টিক ছন্দ | Love Status Bangla

❤❤ভালোবাসার ছন্দ | ভালোবাসার ছন্দ রোমান্টিক | ভালোবাসার ছন্দ স্ট্যাটাস❤❤ ভালোবাসা হলো এক অন্যরকম অনুভূতির নাম, যা শুধুমাত্র কাউকে ভালবাসলেই অনুভব করা যায়। আমরা বিভিন্নভাবে

Read More »
মন খারাপের স্ট্যাটাস

মন খারাপের স্ট্যাটাস, উক্তি, ছন্দ, ক্যাপশন, কিছু কথা ও লেখা

মন খারাপের স্ট্যাটাস মন খারাপ – এই কষ্টের অনুভূতি কার না হয়? সবারই কখনো না কখনো সবারই মন খারাপ হয়। জীবনের ছোটোখাটো অঘটন থেকে শুরু

Read More »
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রেমের উক্তি

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রেমের উক্তি

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রেমের উক্তি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে বলা হয় বিশ্বকবি। তিনি ছিলেন একজন বিচক্ষণ ও গুনী লেখক। প্রেম চিরন্তন এবং সত্য। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বাঙালীর মনে প্রেমের

Read More »
ব্রেকআপ স্ট্যাটাস বাংলা

ব্রেকআপ স্ট্যাটাস বাংলা | Breakup Status Bangla

ব্রেকআপ স্ট্যাটাস বাংলা আপনি কি আপনার প্রিয়জনের সাথে সম্পর্ক থেকে বের হয়ে এসেছেন? আর সেটা আপনি কোন ব্রেকআপ স্ট্যাটাস বাংলা মাধ্যমে বোঝাতে চাচ্ছেন। তাহলে আপনি

Read More »

Leave a Comment

Table of Contents