Dreamy Media BD

চুলের যত্নে এলোভেরা এর ৭ প্যাক

চুলের যত্নে এলোভেরা

ঘৃতকুমারী যার বৈজ্ঞানিক নাম হল এলোভেরা। এটি একটি রসালো এবং লিলি প্রজাতির উদ্ভিদ। এটি এমন একটি প্রাকৃতিক উপাদানের নাম যার রয়েছে অনেক বেশি কার্যকারিতা। এলোভেরা রয়েছে ঔষুধি গুণ , ত্বকের যত্নে যেমন সর্বশেষ বা তেমনি চুলের যত্নেও এটি অনন্য।এলোভেরাতে রয়েছে ভিটামিন এ সি ই,স্যাপনিন সুগার এনজাইম,আ্যামিনো ও স্যালিসাইলিক, মিনারেল ইত্যাদি।

এসব উপাদান সহজে চুলের সৌন্দর্য ফিরে পেতে চুলকে ঝলমলে মসৃণ করতে সাহায্য করে। নিয়মিত চুলের যত্নে এলোভেরা প্যাক ব্যবহার করলে চুল ফিরে পাবে সজীবতা বজায় থাকবে আর্দ্রতা। তাই মনকাড়া চুল পেতে অ্যালোভেরা জেলের ব্যাবহার জানা প্রয়োজন। সম্পূর্ণ ঘরোয়া পদ্ধতিতে এলোভেরা মাস্ক কিভাবে তৈরি করবেন তা বলে দিচ্ছি চলুন।

চুলের যত্নে এলোভেরা এর কয়েকটি হেয়ার মাস্ক

প্রতিটি প্রাকৃতিক উপাদানের রয়েছে ব্যাপক উপকারিতা। এক একটি প্রাকৃত উপাদান গুনাগুন বর্ণনা শুরু করলে শেষ করা কঠিন হয়ে যায়। চুলের যত্নে এলোভেরা প্যাকের সাহায্যে আমরা চোরের যত্ন নিতে পারি নির্দ্বিধায়। কেননা প্রাকৃতিক উপাদানের ব্যবহারে কখনো যদি তেমন কোনো উপকারিতা না আসে এর বিপরীতে ক্ষতি নেই পরিমিত ব্যবহারে। কিভাবে এলোভেরেরা চুলের মাস্ক তৈরি করবেন :-

এলোভেরা ডিম ও টক দই

ছোট একটি বাটিতে চার চা চামচ এলোভেরা জেল নিন। এতে আস্ত একটি ডিম ভেঙ্গে দিন। এতে যোগ করে নিন তিন চা চামচ নারিকেল তেল ও ১ চামচ টক দই। এখানে এটাকে ব্লেন্ড করে নিন।সুন্দর একটা পেস্ট তৈরি হয়ে গেল চুলের যত্নে ব্যবহার উপযোগী। চুলের গোড়া থেকে আগা পর্যন্ত প্রতিটা স্থানে ভালোভাবে মাস্কটি ব্যবহার করুন।মাস্কটি এক ঘণ্টার মতো চুলে রাখতে পারেন।ব্যবহারের পর অবশ্যই হেয়ার ক্যাপ বা পলিথিন ব্যাগ হলেও মাথায় পেচিয়ে রাখবেন। এই প্যাকটি চুলকে দ্রুত লম্বা করে।

এলোভেরা ও লেবুর রস

চুলের মধ্যে যে অতিরিক্ত তেলতেলে বভাব থাকে সেটা দূর করে দেয় এলোভেরা ও লেবুর রসের মাস্ক। এক টেবিল চামচ এলোভেরা জেল এর সাথে দুই টেবিল চামচ লেবুর রস ভালোভাবে মিক্স করে নিন। এটি ভেজা চুলে ব্যবহার করুন। চুলের গোড়াসহ সমস্ত চুলে। ১০ থেকে ১৫ মিনিট রেখে চুল ভালোভাবে ধুয়ে ফেলুন।

এলোভেরা ও লেবুর রস
এলোভেরা ও লেবুর রস

এলোভেরা ও অলিভ অয়েল

আগা ফাটা রোধ করে চুলকে করে ও চুলকে সিল্কি করতে সাহায্য করে এলোভেরা ও অলিভ অয়েলের মাস্ক। এতে ভিটামিন ই যোগ করেও ব্যবহার করা যায়। আধা কাপ এলোভেরা জেল এর সাথে একটি ভিটামিন ই ক্যাপসুল এবং 2 টেবিল চামচ অলিভের মিক্স করে নিন। মিশ্রণটি সামান্য আচে চুলায় গরম করে নিন। ঠান্ডা হলে হেয়ার ব্রাইস দিয়ে চুলের তালুতে ভালোভাবে লাগান।পুরো চুলও লাগাতে পারেন মিশ্রণটি। ৪০ মিনিটের মত মাথায় রাখুন।

এলোভেরা ও মেথির হেয়ার মাস্ক

অ্যালোভেরার সাথে মেথি ইউজ করলে চুল ন্যাচারালি লম্বা হয়। চুলের গোড়া হয় শক্ত ও মজবুত।এই মাস্ক একবার তৈরি করে আপনি অনেক দিন পর্যন্ত ব্যবহার করতে পারবেন। বড় তিনটি এলোভেরা পাতা নিয়ে খোসা ছাড়িয়ে জেল বের করে ব্লেন্ড করে নিন। দুই থেকে তিন মুঠী মেথি দানা একটি বাটিতে ভিজিয়ে রাখুন রাতে।

বড় তিনটি এলোভেরা পাতা নিয়ে খোসা ছাড়িয়ে জেল বের করে ব্লেন্ড করে নিন। মেথি দানার বেজানো পানিটুকু এলোভেরা জেলের সাথে মিশিয়ে একটি বোতলে ভরে নিন। নিয়মিত গোসলের আগে এই মাস্কটি ব্যবহার করতে পারেন। ৩০ মিনিটের মত রেখে মাথায় মাথা ধুয়ে ফেলুন।

এলোভেরা ও পেঁয়াজের হেয়ার মাস্ক

এলোভেরা ও পেঁয়াজের রস দিয়ে হেয়ার মাস্কটি চুলের জন্য খুবই উপকারী। চুল পড়া রোধ করে এটি এবং নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে।অ্যালোভেরার খোসা ছাড়িয়ে কিউব কিউব করে কেটে ব্লেন্ড করে নিন আগে।এরপর আলাদাভাবে দুটি পেয়াজ কুচি করে কেটে ব্লেন্ড করে নিন।দুটি রস একসাথে করে ভালোভাবে মিশিয়ে নিন।চুলের স্কেলে ভালোভাবে আলতো লাগান।অতঃপর পুরো চুলও একইভাবে লাগিয়ে নিন। ৪০-৪৫ মিনিট রেখে মাথা পরিষ্কার করে ফেলুন।

এলোভেরা জেল ও ক্যাস্টর অয়েল

ক্যাস্টর অয়েলের গুনাগুন সম্পর্কে আমরা সবাই জানি। ত্বকের যত্নের পাশাপাশি চুলের যত্ন ইউটিউব বেশ উপকারী একটি প্রাকৃতিক উপাদানের নাম। একইভাবে এলোভেরা জেল ও একটি অসাধারণ গুণসম্পন্ন প্রাকৃতিক উপাদান। আরে এই দুই মহামূল্যবান প্রাকৃতিক উপাদানের সমন্বয়ে তৈরি হয় বিশেষ এক হেয়ার মাস্ক। যেটা ব্যবহার করলে চুল হয় সফট-স্মথি ও অনেক শাইনি।

মাস্ক তৈরি করবেন যেভাবে :তিন টেবিল চামচ এলোভেরা পেস্ট এর সাথে এক টেবিল চামচ ক্যাস্টর অয়েল নিন। ৪-৫ মিনিট ভালোভাবে বিট করে চুলে ব্যবহার করুন। এই হেয়ার মাস্কটি আপনি চাইলে চুলে ৩০মিনিট-১ ঘন্টা পর্যন্ত রাখতে পারেন।

এলোভেরা জেলের সাথে টি ট্রি অয়েলের ব্যবহার

এই পেস্ট টি চুল পড়া রোধ করে এবং চুলকে দ্রুত লম্বা হতে সাহায্য করে।ছোট একটি পেলাও তে চার চা চামচ এলোভেরা জেল ঢেলে নিন।সাথে যোগ করেন নিন টি ট্রি ওয়েল ৫ থেকে ৬ ফোটা। এর সাথে যদি ছোট একটি লেবুর রসও যোগ করতে পারেন তাহলে সেটা আরো বেশি উপকারী হবে।যাইহোক মাস্ক মেইকার ব্রাশের সাহায্যে ভালোভাবে ঘুটতে থাকুন। তৈরি হয়ে গেল চিঠি এবং এলোভেরার হেয়ার পেস্ট। ৩০ মিনিট মাথায় রাখুন মাস্কটি।

উপরে উল্লেখিত সাতটি এলোভেরা হেয়ার মাস্ক চুলের যত্নে খুবই ইফেক্টিভ। চুলকে লম্বা, মসৃণ, ঘন, কালো করার পাশাপাশি চুল পড়াও রোধ করে।প্রতিটি হেয়ার মাস্কই আমাদের ব্যবহার করা উচিত। সাপ্তাহে নির্দিষ্ট দিন গ্যাপ দিয়ে দিয়ে মাস্কগুলো ব্যবহার করলে যথাযথ উপকার পাওয়া যাবে। এজন্য চুলের যত্নে এলোভেরা হেয়ার প্যাক এর একটি রুটিন করে নিলে মন্দ হয় না। তাতে করে প্রতিটি হেয়ার পেকে ইউজ করা হয়ে যাবে।

আর একটা কথা অবশ্যই মনে রাখতে হবে যে, প্রতিটি চুলের যত্নে এলোভেরা প্যাক ব্যাবহার করার পরে আধা ঘন্টা থেকে এক ঘন্টার মধ্যে চুল ধুয়ে পরিষ্কার করে নেওয়া উচিত। এজন্য প্রথমে নরমাল ঠান্ডা পানি দিয়ে চুল ধুয়ে নিতে হবে। ভালো ব্র্যান্ডের সেম্পু দিয়ে চুল সেম্পু করবেন। পরবর্তীতে অবশ্যই কন্ডিশনার লাগাবেন চুলে।

চুলের যত্নে এলোভেরার উপকারিতা

এলোভেরা চুল ও মাথার ত্বকের সমস্যাগুলো সমাধানের সহায়ক ভূমিকা রাখে এমনটাই বলেছেন NCBI চুলে যথাযথ পুষ্টি জোগাতে অন্যরকম প্রাকৃতিক এক উপাদানের নাম এলোভেরা। এলোভেরা তে থাকা প্রোটিওলাইটিক এনজাইম আমাদের স্কেল্পের ড্যামেজ কে দূর করে দেয়। ফলে চুল তার প্রয়োজনীয় পুষ্টি উপাদান খুব সহজেই পেয়ে যায়। চুল বেড়ে যেতে থাকে থাকে তর তর করে।

তাছাড়া এলোভেরা কাজ করে ছত্রাক বিরোধী অথবা জীবাণু নাশক হিসেবে আমাদের চুলের স্কেলে কাজ করে।অর্থাৎ এন্টিনড্যানড্রপ এর ভূমিকা পালন করে। তাছাড়া এত রয়েছে ভিটামিন বি১,বি২ ও বি ১২। তাই খুব সহজে খুশকি সমস্যা দূরে সরিয়ে দিতে পারে এটি। টাক পড়া প্রতিরোধ করে।

খুব কম সময় চুল ঘন হতে সাহায্য করে। চুলের যত্নে এলোভেরা প্যাক ময়েশ্চারাইজার হিসেবে কাজ করে ফলে চুলের আদ্রতা কে ধরে রাখতে পারে বেশ কিছুক্ষণ। চুলের প্রয়োজনীয় প্রোটিন যোগায় এটি। তাছাড়া এটি একটি ন্যাচারাল কন্ডিশনার হিসেবে কাজ করে।

ফলে চুল থাকে সিল্কি ও নরম। আবার অনেকের ক্ষেত্রে দেখা যায় যে মাথায় চুল অনেক বেশি শুষ্ক থাকে এবং চুলকানি ভাব থাকে চুলের ত্বকে।অ্যালোভেরা ব্যবহারের এসব সমস্যা থেকে পরিত্রাণ পাওয়া যায় সহজেই।

তাই অ্যালোভেরার এসব বিস্ময়কর গুণাবলী নিজ চোখে দেখতে হলে এলোভেরা ব্যবহারে আমাদেরকেও তৎপর হতে হবে।

চুলের যত্নে এলোভেরার উপকারিতা
চুলের যত্নে এলোভেরার উপকারিতা

এলোভেরা চুলে কিভাবে ব্যবহার করব

এলোভেরার উপকারিতা আমরা জানি। চুলের যত্নে এলোভেরা প্যাক কত উপকারী তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। সে উপকারিতা যথাযথ ভাবে পেতে আমাদের চুলে এলোভেরার ব্যবহারটা কিভাবে করব তা জানতে হবে। গাছ থেকে তো পাতা কেটে এনে মাথায় ঘষলেই কাজ হবে না! বরং এর জন্য সঠিক পন্থা অবলম্বন করতে হবে। উপরের যে সাতটি হেয়ার মাস্কের কথা বললাম এগুলোই হল এলোভেরা চুলে ব্যবহারে সর্বোত্তম পদ্ধতি।

তার কিছুটা বেশ-কম হতে পারে উপাদানের আপনার চুলের পরিমাণ অনুযায়ী। চুল বেশি হলে বা একটু লম্বা হলে আপনি উপরে দেওয়া উপাদানের পরিমাণ থেকে একটু বাড়িয়ে নিবেন। আর কম হলে পরিমাণে একটু কম নিবেন। হেয়াট ব্রাশের সাহায্যে সক্যালে লাগালে ভালো হয়। তাছাড়া যদি হাত দিয়েই চুলে লাগান পেস্ট, তাহলে হাতটি ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিবেন আগে।

ছেলেদের চুলের যত্নে এলোভেরা

একদিকে ছেলেরাও চায় তাদের চুলগুলো একটু ঝরঝরো হোক ঘন হোক ও মসৃণ থাকুক। অন্যদিকে তাদেরকে আবার দিনের অধিকাংশ সময় বাহিরে থাকতে হয় জীবিকার প্রয়োজনে। ফলে ধুলোবালু ও তাদেরকে বেশি আক্রমণ করে। ফলে প্রচুর ধুলো এসে পড়ে তাদের চুলে। তাই তাদেরকে আরো বেশি গুরুত্বসহকারী চুলের যত্ন নেওয়া প্রয়োজন।

এক্ষেত্রে এলোভেরা হতে পারে একটি প্রাকৃতিক মহোঔষধ। এই সাতটি হেয়ার মাস্ক বোনদের ক্ষেত্রে যেমন প্রযোজ্য ভাইদের ক্ষেত্রও সমানভাবে প্রযোজ্য। তাই ভাইয়েরাও উপরের আলোচিত এলোভেরা হেয়ার মাস্ক বানিয়ে চুলে দিবেন। সাপ্তাহে দুদিন চুলের যত্নে এলোভেরা প্যাক ব্যবহার করলে নিজের চুলের উন্নতি নিজেই লক্ষ্য করতে পারবেন। ফলে তারাও পাবে ঘরোয়া উপায়ে সুন্দর ও আকর্ষণীয় চুল।

এলোভেরা কি সরাসরি চুলে ব্যবহার করা যায়?

চুল মানুষের সৌন্দর্য বৃদ্ধির হাতিয়ার। আমরা চাই আমাদের চুলগুলো আর একটু নরম, ঘণ, মজবুত এবং শক্তিশালী হোক। তাই খুঁজে বেড়াই বিভিন্ন ঘরোয়া পদ্ধতিতে চুল সুন্দর করার উপায়গুলো।

প্রাকৃতিক উপায়ে চুলের যত্নে এলোভেরা প্যাক প্রথম সারির নির্বাচন একটি উপাদান। এলোভেরা কি চুলে সরাসরি ব্যবহার করা যায় এই প্রশ্নের উত্তরে বলতে হয় ব্যবহার করা যাবে।

তবে অ্যালোভেরার সাথে যদি প্রাকৃতিক আরো অন্যান্য উপাদান যোগ করে চুলে লাগানো হয় তাহলে তার প্রভাবটা বেড়ে যায় বহুগুণে। এক্ষেত্রে চুলের যত্নে একই সাথে পাওয়া যায় গুলো উপকারিত। এতে চুল হয় কম সময়ে কম পরিশ্রমে ঘন ও লাবণ্যময়।

উপসংহার

আমরা চুলের যত্নে বিভিন্ন ময়েশ্চারাইজার অনেক সময় ব্যবহার করে থাকি। সাথে আমাদের ভেতর একটা ভয় থেকেই যায় যে, কোন ক্ষতি হয়ে যায় বা কোন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। বাজারে কেমিক্যাল জাতীয় যতই চুলের ময়েশ্চারাইজার পাওয়া যাক না কেন এর সবগুলোই কোনটা কোন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া থাকে। তাই আমাদের মনের এ ভয় কে দূর করতে ও কোন ধরনের ক্ষতি ছাড়া চুলের যত্ন নিতে আমরা নির্ভর করতে পারি প্রকৃতির উপর।

চুলের যত্নে এলোভেরা প্যাক এক খুবই গুরুত্বপূর্ণ যা আমরা এই আর্টিকেলটির মাধ্যমে বুঝতে পেরেছি। অ্যালোভেরা হেয়ার প্যাক ব্যবহার করে আমরা পেতে পারি ন্যাচারালি ভাবে লম্বা, ঘন, কালো, সফট চুল।

Related Post

খুশির স্ট্যাটাস

200+ স্টাইলিশ খুশির স্ট্যাটাস | হাসি নিয়ে ক্যাপশন

খুশির স্ট্যাটাস | হাসি নিয়ে ক্যাপশন জীবনের সুন্দর খুশির মুহূর্ত আমরা সবাই বাঁধাই করে রাখতে চাই। আর এই খুশির মুহূর্তকে ধরে রাখার সবচেয়ে সহজ উপায়

Read More »

স্টাইলিশ ভালোবাসার ছন্দ | রোমান্টিক ছন্দ | Love Status Bangla

❤❤ভালোবাসার ছন্দ | ভালোবাসার ছন্দ রোমান্টিক | ভালোবাসার ছন্দ স্ট্যাটাস❤❤ ভালোবাসা হলো এক অন্যরকম অনুভূতির নাম, যা শুধুমাত্র কাউকে ভালবাসলেই অনুভব করা যায়। আমরা বিভিন্নভাবে

Read More »
মন খারাপের স্ট্যাটাস

মন খারাপের স্ট্যাটাস, উক্তি, ছন্দ, ক্যাপশন, কিছু কথা ও লেখা

মন খারাপের স্ট্যাটাস মন খারাপ – এই কষ্টের অনুভূতি কার না হয়? সবারই কখনো না কখনো সবারই মন খারাপ হয়। জীবনের ছোটোখাটো অঘটন থেকে শুরু

Read More »
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রেমের উক্তি

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রেমের উক্তি

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রেমের উক্তি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে বলা হয় বিশ্বকবি। তিনি ছিলেন একজন বিচক্ষণ ও গুনী লেখক। প্রেম চিরন্তন এবং সত্য। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বাঙালীর মনে প্রেমের

Read More »
ব্রেকআপ স্ট্যাটাস বাংলা

ব্রেকআপ স্ট্যাটাস বাংলা | Breakup Status Bangla

ব্রেকআপ স্ট্যাটাস বাংলা আপনি কি আপনার প্রিয়জনের সাথে সম্পর্ক থেকে বের হয়ে এসেছেন? আর সেটা আপনি কোন ব্রেকআপ স্ট্যাটাস বাংলা মাধ্যমে বোঝাতে চাচ্ছেন। তাহলে আপনি

Read More »

Leave a Comment

Table of Contents