Dreamy Media BD

অ্যালোভেরার উপকারিতা

অ্যালোভেরার উপকারিতা

আ্যলোভেরার অপর নাম ঘৃতকুমারী। নামের সৌন্দর্য্যের মতো এর গুনেরও সৌন্দর্য্য রয়েছে। এটি জববহুজীবী ভেষজ উদ্ভিদ। এটি পরিচিত একটি গাছ যার উপরের স্তরটা মোটা দুই পাশে কাঁটার মতো যেন ফণীমনসা তবে ভেতরে নরম পিচ্ছিল জেল। এটি লিলি প্রজাতির উদ্ভিদ।  আ্যলোভেরার উপকারিতা  শুধু ত্বক ও চুলের যত্নে নয় বরং মানব শরীরের জন্য উপাদেয়। আদিকাল থেকেই আয়ুর্বেদিক চিকিৎসা থেকে শুরু করে বিভিন্ন প্র‍য়োজনে এর চাহিদা রয়েছে ব্যাপক। কম বেশি সবার বাড়ির ছাদে এই ঔষধি গাছ দেখা যায়। সাধারনত এর দৈর্ঘ্য হয় ১০ থেকে ২০ ইঞ্চি।

অ্যালোভেরার ৭ টি উপকারিতা 

আ্যলোভেরায় কি নেই? এতে ক্যালসিয়াম, আয়রন, পটাশিয়াম, ফলিক এসিড, ম্যংগানিজ, জিংক, ভিটামিন বি ২, ভিটামিন বি ৬ ইত্যাদি সব গুনে গুণান্বিত এই ভেষজ উদ্ভিদ। নিম্নে অ্যালোভেরা ৭টি উপকারিতা আলোচনা করা হলো:

  1. রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়: আ্যলোভেরা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে অতি সহায়ক কেননা এতে রয়েছে পর্যাপ্ত পরিমানে ভিটামিন ও খনিজ যা মানসিক চাপ কমাতেও সহায়তা করে। হজম ক্ষমতা বৃদ্ধিতে আ্যলোভেরার গুরুত্ত্ব অপরিসীম। প্রতিদিন আ্যলোভেরার রস খেলে শরীর থেকে ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া নিমিষেই দূর, শ্বেতকণিকার সংখ্যা বৃদ্ধি করে, ত করে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে।
  2. ওজন কমায়: আ্যলোভেরায় রয়েছে অনেক বেশি আন্টি-ইনফ্লামেটরি উপাদান যা আপনার শরীরের  অতিরিক্ত মেদ ও চর্বি কমিয়ে আনে। এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে মিনারেল ভিটামিন অ্যামাইনো এসিড এনজাইম যা আপনার স্বাস্থ্য ভালো রাখে এবং ওজন কমায়। শরীর চর্চার উপর মাত্র ১০% ওজন হ্রাস করে কিন্তু আমাদের ডায়েট ও বিপাকের উপর নির্ভর করে ৯০%।
  3. ত্বক হাইড্রেটেড রাখে:- ত্বকের যত্নে অ্যালোভেরার গুরুত্ব  অপরিসীম। ত্বকের অতিরিক্ত তেল কমিয়ে ছিদ্র পথের ময়লা দূর করে পর্যাপ্ত পানি বজায় রাখে এবং ত্বক হাইড্রেটেড থাকে। এছাড়াও ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা যেমন র‍্যাস, চুলকানি, রোদ পোড়া দাগ ইত্যাদি ত্বক থেকে তাড়িয়ে দেয়। আ্যলোভেরা জেল ত্বকে নিয়মিত লাগালে ত্বক হবে উজ্জ্বল ও মসৃণ পাশাপাশি বার্ধক্যের ছাপ আসা থেকে বিরত রাখে।
  4. ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ রাখে: ডায়াবেটিস রোধে আ্যলোভেরার উপকারিতা অতুলনীয়।  যারা ডায়াবেটিস এ ভুগছেন তারা  এবার ট্রাই করে দেখুন অ্যালোভেরার রস। এটি আপনার ডায়াবেটিস কে বিদায় করবে। পুষ্টিবিদদের মতে আ্যলোভেরা বা ঘৃতকুমারীর রস  আপনার গ্লুকোজের পরিমাণ কমিয়ে এনে ইনসুলিনের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে। থাইল্যান্ডের গবেষণা সংস্থার মতে ডায়াবেটিসের পাশাপাশি মেলিটাস রোগেরও নিরময় করে থাকে।
  5. কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করেঃ আজকাল অনেক বেশি মানুষ কোষ্ঠকাঠিন্যে ভুগছেন এবং অপারেশন ছাড়া যেন গতি পাচ্ছেন না। তাই এ সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে নিয়মিত  অ্যালোভেরার রস পান করুন। প্রতিদিন সকাল এবং রাত্রে এক চামচ আ্যলোভেরার রস এক গ্লাস কুসুম গরম পানির সাথে মিশিয়ে খান এবং ফলাফল নিজেই দেখুন।  আ্যলোভেরার রয়েছে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ও ফাইবার যা রেচনক্রিয়ার গতি স্বাভাবিক করে  এবং পাকস্থলীকে ঠান্ডা রাখে। এটি নিয়মিত গ্রহণ করলে  আলসার কোলাইটিসের মতো রোগ বিদূরিত হয়।
  6. হার্ট এর যত্নেঃ হার্টের জন্য অ্যালোভেরা জেল খুব বেশি উপকারী। এটি হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি কমিয়ে আনে। তাই যারা হার্টের সমস্যায় ভুগছেন দেরি না করে নিয়মিত  অ্যালোভেরার জুস পান করুন। এটির নিয়মিত পান করার মাধ্যমে শরীরে কোলেস্টেরল এর মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে এবং ভারসাম্য বজায় রাখে যাতে রক্তচাপ না বাড়ে। কেননা শরীরে কোলেস্টেরল এর প্রয়োজন রয়েছে তবে মাত্রাতিরিক্ত হলে হার্টের সমস্যা হতে পারে। আ্যলোভেরায় রয়েছে নানা ধরনের ওষুধি গুনাগুন যা কোলেস্টেরল এর মাত্রা কমিয়ে ফলে শরীর থেকে দূষিত রক্ত বের হয়ে যায় এবং হার্টকে সতেজ রাখে।
  7. দাঁত ও বাতের সমস্যা প্রতিরোধ করে: অ্যালোভেরা যেকোনো প্রকার কাটা ছেঁড়া ক্ষতকে সারিয়ে  তুলতে পারে। আ্যলোভেরায় রয়েছে ভিটামিন সি যা দাতের মাড়ির ক্ষয়রোধ প্রতিরোধ করে ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ প্রতিহত করে। এটি ফুলে যাওয়া কমাতে ও ইনফ্লেশন দূর করে। টুথপেস্ট এর সাথে অল্প জেল নিয়ে প্রতিদিন দাঁত মাজুন এটি দাঁতের ক্ষয়রোধ করবে এবং দাঁতের ফাক হতে সরে যাওয়া মাড়ি ফিরে আসবে নিজ স্থানে। ঘরের কাজে অনেক বেশি সময় দেয়া সাথে একই পজিশনে কাজ করলে হাঁটুর পেশিতে ও কোমরে টান পড়ে এটি খুবই স্বাভাবিক। এই সমস্যা দূরীকরণে অ্যালোভেরা খুব উপাদেয় একটি উপকরন। নিয়মিত আ্যলোভেরার ক্রিম হাটু ও কোমরে ম্যাসাজ করলে ব্যথা থেকে নিমিষেই আরাম পাবেন।

অ্যালোভেরা খাওয়ার নিয়ম

অ্যালোভেরা খাওয়া
অ্যালোভেরা খাওয়া

আ্যলোভেরার রস সব বয়সের মানুষ খেতে পারে এতে সমস্যা নেই তবে ইচ্ছামত না খেয়ে পরিমানমত খেতে হবে এতে উপকার বেশি পাওয়া যাবে। কেননা অতিরিক্ত কিছুই উপকার করে না বরং উল্টোই হয়। আ্যলোভেরায় রয়েছে আ্যন্টি-অক্সিডেন্ট,  নিউট্রিয়েন্টস, ভিটামিন সি, ই প্রায় সবধরনের ভিটামিন। এখন আলোচনা করব যেভাবে আ্যলোভেরা জেল তৈরি করে খেলে খারাপ লাগবে না:

  • আ্যলোভেরা দুই চামচ, এক গ্লাস পানি, এক চামচ লেবু, একটু গোল মরিচ গুড়া, এক চিমটি বিট নুন ও প্রয়োজনমতো বরফ কুচি ভালোভাবে মিক্সড করে খেতে হবে। এটি খেতে খারাপ লাগবে না বরং শরীর চাঙা হয়ে উঠবে। 
  • আ্যলোভেরার একটি পাতার রসের সাথে দুই চামচ মধু সাথে এক চিমটি বিট নুন ও এক গ্লাস পানি আর স্বাদ অনুযায়ী বরফ কুচি একসাথে ব্লেন্ড করে খেতে হবে।  আশা করা যায় এই প্রক্রিয়ায় খেলে  আ্যলোভেরার বিদঘুটে  স্বাদ বুঝা যাবে না।

সবচেয়ে ভাল হয় প্রতিদিন সকালে খালি পেটে এক গ্লাস কুসুম গরম পানির সাথে দুই চামচ আ্যলোভেরা মিশিয়ে খেতে এতে উপকৃত হওয়া সম্ভব। বাজারে আ্যলোভেরার জুস কেনাপাওয়া যায় তবে বাড়িতে বানিয়ে খাওয়ায় বেশি স্বাস্থ্যকর। আ্যলোভেরার উপকারিতা সেই আদিমযুগ থেকেই বিদ্যমান। যাদের এলার্জি সমস্যা আছে এবং দুগ্ধবতী, গর্ভবতী বা বেশি বয়স্ক মহিলা তাদের না খাওয়াই ভালো।

ত্বক  ও চুলের যত্নে এলোভেরার উপকারিতা

আ্যলোভেরার গুরুত্ত্ব ত্বক ও চুলের যত্নে আলোচনা করা হলো:

ত্বকের যত্নে আ্যলোভেরা

  • বাইরে থেকে ফিরেই মুখটাকে ভালোভাবে ধুয়ে নিতে হবে কেননা বাইরে ধুলাবালি ময়লা মুখে লেগে যায়। এবার ত্বকের উপর জমে থাকা  ময়লা ও মরা কোষ  স্ক্রাব দিয়ে পরিষ্কার করে নিতে হবে এরপর মুখে  অ্যালোভেরা লাগাতে পারেন। এটি আপনার ত্বকে স্নিগ্ধতা বয়ে আনবে।
  • প্রতিদিন অন্তত দুইবার সকালে এবং রাত্রে ত্বকে আ্যলোভেরা জেল লাগিয়ে নিন এর এক সপ্তাহ পর আপনার ত্বকের উজ্জ্বলতা দেখে নিন।
  • নিয়মিত রাতে ঘুমানোর আগে আ্যলোভেরা মুখে লাগালে ধীরে ধীরে ত্বকের মেছতা দূর হয়ে যাবে, ত্বকের বলি রেখা দূর হবে।
  • ঘামের কারণে ত্বক তেলচিটে হয় ফলে ব্রণের সমস্যা দেখা দেয়। দিনে দুইবার মুখে অ্যালোভেরা লাগালে ব্রণের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব

চুলের যত্নে আ্যলোভেরা

  • অল্প সময়ে চুলের যত্নে আ্যলোভেরার উপকারিতা বলে শেষ হবে না। চুল পড়া বন্ধ করতে চাইলে সপ্তাহে একদিন অন্তত আ্যলোভেরার জেল চুলে লাগিয়ে নিন। আ্যলোভেরা চুল পড়া বন্ধ করে নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে।
  • কিছু এলোভেরা সমৃদ্ধ হারবাল বা মাইল্ড শ্যাম্পু পাওয়া যায়। এই শ্যাম্পু চুলের সুস্থতায় সহায়ক।
  • চুল পরিষ্কার ও মসৃণ করতে আ্যলোভেরার হেয়ার প্যাক ব্যবহার করা যায়। তিন চামচ আ্যলোভেরা জেলের সাথে এক চামচ নারিকেল তেল ও এক চামচ লেবুর রস মিক্সড করে চুলে ভালোভাবে ম্যাসাজ করতে হবে এতে চুল সতেজ থাকবে এবং চুলের রুক্ষতা দূর করবে।
  • চুল সুস্থ রাখতে নিয়মিত চুলে তেল দিতে হবে। অলিভ অয়েল  বা নারিকেল তেলের সঙ্গে আ্যলোভেরা তেল মিশিয়ে চুলে লাগালে চুল মসৃণ হবে।
  • বাড়িতেই আ্যলোভেরা তেল বানিয়ে নিতে পারেন। আ্যলোভেরা রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট  লেবুর রসের সাথে আ্যলোভেরা জেল মিশিয়ে চুলে লাগালে চুলের রুক্ষতা দূর হবে এবং খুশকি দূর হবে।

আরও বিস্তারিত জানতে এই পোস্ট টি পড়ুন – ‘চুলের যত্নে এলোভেরা

আ্যলোভেরা জেল তৈরি করবেন যে প্রক্রিয়ায়:

আ্যলোভেরা জেল
আ্যলোভেরা জেল

আ্যালোভেরা জেল তৈরীর নিয়ম নিচে দেওয়া হলো:-

  • অ্যালোভেরার পাতা থেকে নরম অংশটুকু  বের করে এক বা দুই চামচ মধু মিশিয়ে আইস-ট্রেতে রেখে এক মাসের মতো সংরক্ষন করা যাবে।
  • অ্যালোভেরার দুই থেকে তিনটি পাতা নিয়ে ভালোভাবে পরিষ্কার করে শুধু ভেতরের জেলটুকু নিয়ে ও ভিটামিন ই ক্যাপসুল ব্লেন্ড করে নিতে হবে। এখন এই জেল একটি কাঁচের বোতলে করে ফ্রিজে রাখতে হবে আপনি অনায়াসেই এই জেল এক মাস অবধি ব্যবহার করতে পারবেন।
  • এছাড়াও ভিটামিন সি ক্যাপসুল বা লেবুর রস অ্যালোভেরার রসের সাথে ভালোভাবে মিক্সড করে এক থেকে দুই মাস ফ্রিজে সংরক্ষন করা যাবে। 

অ্যালোভেরা জেল ব্যাবহার করার নিয়ম

চুল, ত্বক,স্বাস্থ্য এই তিনটি বিষয়ের জন্য অ্যালোভেরার উপকারিতা অতুলনীয়। কিছু নিয়ম মেনে এলোভেরা রস চুলে বা ত্বকে এতে আরো বেশি উপকৃত হওয়া যাবে। এখন আলোচনা করব অ্যালোভেরা  জেল ব্যবহারের নিয়ম:-

  • অ্যালোভেরার সাথে একটু হলুদ, মধু ও গোলাপজল মিশিয়ে টেস্ট করে ত্বকে ২০ মিনিট রেখে মুখ ধুয়ে ফেলুন এই উপকরণগুলি ব্রণের সমস্যা বিদায় করে।
  • অ্যালোভেরার জেলের সঙ্গে কয়েকফোঁটা লেবুর রস মিক্সড করে টকে লাগান এটি রোদে পোড়া ভাব দূর করবে।
  • টক দই এর সঙ্গে অ্যালোভেরা মিক্সড করে ফেস মাস্ক  তৈরি করতে পারেন আবার চুলে ও লাগাতে পারেন। ত্বক মসৃণের সঙ্গে সঙ্গে চুলও মসৃণ করবে। 

পুরুষদের জন্য অ্যালোভেরার উপকারিতা

এলোভেরা যেমন মেয়েদের জন্য উপকারী পুরুষদের জন্য উপকারী। তেমনী অ্যালোভেরার উপকারীতা পুরুষদের জন্য ও রয়েছে। সারাদিন ব্যস্ততার পর চুল যেন রুক্ষ হয়ে পড়ে সঙ্গে ত্বকের সজীবতা হারিয়ে যায়। পুরুষরা চাইলে তাদের ত্বক ও চুলের যত্নে এলোভেরা ব্যবহার করতে পারেন। এলোভেরা ব্যবহারের মাধ্যমে চুল ও ত্বক উভয় প্রাণবন্ততা ফিরে পাবে।

পুরুষদের স্বাস্থ্যের জন্য অ্যালোভেরা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বয়স বাড়ার সাথে সাথে শারীরিক শক্তি হ্রাস পায় আবার যৌন ইচ্ছা কমে যায়। অনেক পুরুষ অক্ষম হয়ে পড়ে যৌন মিলনে। তাই বলে কি যৌন জীবন শেষ হয়ে যাবে? আপনার প্রতিদিনের খাবারের ডায়েটে অ্যালোভেরার জুস তবে রাখতেই হবে এটি আপনার যৌন জীবনকে সক্ষম করে তুলবে। এটি শুধু পুরুষদের ক্ষেত্রে নয় বরং নারীদের ক্ষেত্রেও।

পরিশেষ

আ্যলোভেরা যে শুধু স্বাস্থ্যরক্ষায় সাহায্য করে তা নয় বরং ত্বক ও চুলের স্বাস্থ্যে এর অবদান অপরিসীম। বাজারে কেনা ক্যাপ্সুল ও ট্যাবলেটের মাধ্যমে আ্যলোভেরার পুষ্টি পেলেও তরতাজা পুষ্টিগুন পেতে আ্যলোভেরার গাছ লাগানো যায় টবে অথবা  ছাদে বা বাগানে। আ্যলোভেরা পাতা থেকে জেল সংগ্রহ করে এটি ফ্রিজে সংরক্ষন করতে পারেন তবে বাড়িতে কষ্ট না করতে চাইলে বাজারেও আ্যলোভেরার পিউর লোশন, ক্রিম, ফেসওয়াস, জেল পাওয়া যায়। আ্যলোভেরার উপকারিতা চুল, ত্বক ও স্বাস্থ্য উভয় ক্ষেত্রেই খুবই গুরুত্বপূর্ণ। 

আরো পড়ুন –

Related Post

খুশির স্ট্যাটাস

200+ স্টাইলিশ খুশির স্ট্যাটাস | হাসি নিয়ে ক্যাপশন

খুশির স্ট্যাটাস | হাসি নিয়ে ক্যাপশন জীবনের সুন্দর খুশির মুহূর্ত আমরা সবাই বাঁধাই করে রাখতে চাই। আর এই খুশির মুহূর্তকে ধরে রাখার সবচেয়ে সহজ উপায়

Read More »
❤love status bangla | ভালোবাসার ছন্দ | রোমান্টিক ছন্দ | প্রেম ছন্দ স্ট্যাটাস❤

স্টাইলিশ ভালোবাসার ছন্দ | রোমান্টিক ছন্দ | Love Status Bangla

❤❤ভালোবাসার ছন্দ | ভালোবাসার ছন্দ রোমান্টিক | ভালোবাসার ছন্দ স্ট্যাটাস❤❤ ভালোবাসা হলো এক অন্যরকম অনুভূতির নাম, যা শুধুমাত্র কাউকে ভালবাসলেই অনুভব করা যায়। আমরা বিভিন্নভাবে

Read More »
মন খারাপের স্ট্যাটাস

মন খারাপের স্ট্যাটাস, উক্তি, ছন্দ, ক্যাপশন, কিছু কথা ও লেখা

মন খারাপের স্ট্যাটাস মন খারাপ – এই কষ্টের অনুভূতি কার না হয়? সবারই কখনো না কখনো সবারই মন খারাপ হয়। জীবনের ছোটোখাটো অঘটন থেকে শুরু

Read More »
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রেমের উক্তি

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রেমের উক্তি

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রেমের উক্তি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে বলা হয় বিশ্বকবি। তিনি ছিলেন একজন বিচক্ষণ ও গুনী লেখক। প্রেম চিরন্তন এবং সত্য। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বাঙালীর মনে প্রেমের

Read More »
ব্রেকআপ স্ট্যাটাস বাংলা

ব্রেকআপ স্ট্যাটাস বাংলা | Breakup Status Bangla

ব্রেকআপ স্ট্যাটাস বাংলা আপনি কি আপনার প্রিয়জনের সাথে সম্পর্ক থেকে বের হয়ে এসেছেন? আর সেটা আপনি কোন ব্রেকআপ স্ট্যাটাস বাংলা মাধ্যমে বোঝাতে চাচ্ছেন। তাহলে আপনি

Read More »

Leave a Comment

Table of Contents